গুচ্ছকবিতায় উজ্জল কুমার মল্লিক

বসে আছি (১)

বহুদিন ধরে বদ্ধ আছি আমি
হাঁফ ধরে গেছে সব কিছু দেখে,
লেখা-পড়া শেষে রুটি রোজগারে
কেটেছে সময় কোন সে অজান্তে,
ধরে গেছে হাঁফ, ভাই!আছি বসে।
যৌবন উপনীতে, কৈশোর গতে,
চলেছি পথ কত স্বপ্নালু চোখে,
শত-ধারায় নেমেছে হলাহল,
করেছি পান ঐ নীল-কন্ঠরূপে,
বোধশক্তি হীন,তাই আছি বসে।
কালে, ঘটেছে কত পরিবর্তন,
উত্থান-পতন,ঢেউ উছলন,
মোহনায় আসি, চলি তির-তির
আগ্রহে স্থিতিশীল,হ’তে সুস্থির,
মিলন প্রয়াসী ভাব আতিশয্যে:
হাঁফ ধরে গেছে ভাই!আছি বসে।

হে ছন্দেশ্বরী! (২)

লিখে চলি আনমনে আমি কবি,
দৃষ্টিতে যা আসে সব,সকল-ই
ভাষা ও কল্পনার জাল-বুননে
সুষমা-ভরা এ কাব্য-গ্রন্থখানি
বন্দিতে তব পদে,হে ছন্দেশ্বরী!
মাগে আশীষ এ মূঢ়,হে মাধুরী!
শব্দ-চয়ন,কাব্যিক মনোরমে
উঠুক ভরে শোভিত গ্রন্থখানি:
পারিজাত কুসুম যথা প্রাঙ্গনে
হয় প্রস্ফুটিত স্নিগ্ধ সমীরণে।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!