গল্পবাজে ঋতব্রত গুহ (অন্তিম পর্ব)

ট্রান্সফার

এত সকালেও প্ল্যাটফর্ম টা জমজমাট । ট্রেন ছাড়তে আর মিনিট পাঁচেক দেরি। এবার বাড়ি ফিরতে আর তেমন আনন্দ হচ্ছে না অয়নের । আর এখানে আসা হবে না । মানুষের মনের গতিপ্রকৃতি বিচিত্র । যে জায়গাটা তার এত অপছন্দ ছিল সেই জায়গার জন্য আজ চোখ ভিজে যাচ্ছে । কত কথা মনে পড়ে যাচ্ছে অয়নের । ট্রেন হুইসল বাজিয়ে জানান দিল সময় হয়েছে । এবার অয়নকে ট্রেনে উঠতে হবে । অয়ন ট্রেনে উঠল ।

“ চল ! এখানকার সফর তবে শেষ হল ! আর … ” আরও কিছু বলতে যাচ্ছিল অয়ন । কিন্তু হঠাৎ চুপ হয়ে গেল । অবাক চোখে তাকিয়ে রইল মুকুলিকার দিকে । মুকুলিকার পাশে বসে রয়েছে বিলাস । আর মুচকি মুচকি হাসছে ।

“ বিলাস ! “

“ হ্যাঁ বিলাস ! ও আমাদের সাথেই যাবে । আমাদের সাথেই থাকবে । তোমার কোন অসুবিধে নেই তো ? ” শান্তস্বরে প্রশ্ন করল মুকুলিকা ।

অয়ন স্থির হয়ে কিছুক্ষণ তাকিয়ে রইল মুকুলিকার দিকে ।

দরজার সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছে অয়ন । ভেতরটা খুব ঠাণ্ডা । একের পর এক মালভূমি গ্রাম পেরিয়ে যাচ্ছে ট্রেন । স্থির চোখে উপভোগ করছে অয়ন ।

“ কাজটা ঠিক করিনি !” অয়ন পেছনে তাকিয়ে দেখে মুকুলিকা দাঁড়িয়ে ।

“ আমি বিলাসের জন্যই কিন্তু এত আগে এসেছি । আমি বুঝতে পারছিলাম তুমি এখান থেকে চলে গেলে বিলাসের জীবনটা ধ্বংস হয়ে যাবে । তাছাড়া ওর নিজের বলতে তো সেভাবে কেউ নেই । আমি ভাবলাম আমরা যদি ওর দায়িত্ব নিই তবেই একমাত্র এই সমস্যার সমাধান হতে পারে । তবে তোমার অফিসের কলিগরা কিন্তু আমাকে এই কাজে খুব সাহায্য করেছে । আর সবচেয়ে বড় কথা সারপ্রাইজটা শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পেরেছে । “

অয়ন হাসল ।

“ সে জন্যই কাল ওরা বলছিল আসল সারপ্রাইজ এখনও বাকি ! গ্রেট । আমিও জানো এটাই চেয়েছিলাম । কিন্তু নিশ্চিত ছিলাম তো তুমি এটা মানবে কি না ! তাই কিছু বলিনি । “

“ তুমি না বললেও আমি বুঝতে পেরেছিলাম । শুধু তোমার চাওয়া নয় ! আমারও ছেলেটার ওপর কেমন মায়া পড়ে গিয়েছে । এই টান থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করা খুব কঠিন । পাবলো কিন্তু সবটাই জানে । ও অপেক্ষা করছে বিলাসের জন্য ।”

ট্রেন ছুটে চলেছে শিলিগুড়ির দিকে । মনে আর কোন ভার নেই অয়নের ।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!