মানব সংগ্রামের কথা কই কবিতায় মানিক বৈরাগী

মানুষ ও প্রাণী

অ মন তুই এত বিচলিত হোস ক্যান
মাঝে মাঝে মশা মাছিও তো গায়ে বসে
মাঝে মাঝে মত পোকাও উড়ে এসে বসে
পায়ের সাথে পা লাগিয়ে সাপও জড়ায়
পায়ের সাথে পা লাগিয়ে কেচুও জড়ায়
ঘর পড়ে গেলে চালে ছাগল উঠে মে মে করে
ঘরে চালে কবুতরও বসে বাক বাকুম করে
বিড়ালও পোশ মানে আদর পায় খাবার খায়
কুকুরও পোশ মানে খাবার খায় আদর না পায়
কুকুর বেইমানি করেনা থাকে পাহারায়
বিড়াল বেইমানি করে,আদরে লেপে ঘুমায়
গরু ছাগল ভেড়া মহিষ গৃহপালিত পশু
ঘৃহস্থের বিশ্বস্ত গরু,ভেড়া ছাগল মহিষ বিডাল
সুযোগ পেলেই দেয় ছুট,শষ্য করে বিনাষ
তবুও পশু পাখি প্রাণী মানুষের উপকারি।

মানুষ আত্মসার্থে সব কিছু বিনাষকারি
খোদা মানুষ কে বলেছেন সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব!!

মৌলবাদ দুধভাতে উৎপাত

দুধভাতে উৎপাত করা দুধের মাছি
অনাহারীর মুখে বাড়া ভাতের ভাগ দিছি
কইত সে ভাপ নাই, মা অন্য ঘরে সংসারি
ভাই বোন যে যার মতো একাই কলেজ পড়ি
না বুঝে না জেনে করেছি জামাত-শিবির
ভাত-আশ্রয়ে ছেড়ে দিবো দিবো শিবির
এভাবেই পার,পাশ করলো অনার্স-মাস্টার্স
এখন সে চাকুরি করে হচ্ছে স্বাবলম্বী গৃহস্থ
বাপ মা সবি আছে,উচ্চ বংশী পুত্র সে ধনীর
“মানুষের প্রতি বিশ্বাস হারানো পাপ”মেনে
আশ্রয় পশ্রয় বিশ্বাসে পুষেছি এতিম শাবক
দুধভাতে উৎপাত করা দুধের মাছি সে

আমিই মানবিক গর্দভ,তারা ধর্মান্ধ মৌলবাদী খুনি
কোথাও মানুষ দেখিনা, ধর্মান্ধ উম্মাদ দেখি

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!