কবিতায় তাপসকিরণ রায়

পুরুষের গা ও আহ্লাদী নারী

পুরুষের রোমশ হাতে একটি তরবারি উঠে আসে–
তাতে বর্বরতার ছাপ লাগা থাকে।
সেই পুরুষ যখন আবার কেঁদে ভাসায়,
লাল পেয়ালায় মুখ ছুঁইয়ে বলে ওঠে,
এ জীবনে কি পেলাম বল?
রঙিন মাছের ঝাঁক উজানে উঠে যায়,
ব্যর্থতার জলো-কল্লোলে ভেসে যায় বুঝি অজস্র সুখ?
সে সুখ নিয়ে নাড়াচাড়া করছে পুরুষ।
ধোঁয়ার মাঝে আগামীর জ্বলে ওঠা রাখা থাকে,
পুরুষহৃদয় তার গহনে এক নারী পুষে রাখে।
মনের পিপাসায় তার প্রেম প্রেম খেলাজাগে–
স্বপ্নরা তাই বিরহী প্রেমের কাছে উঠে আসে।
এক কেলিসাগর জ্যোৎস্নার ছায়ামায়া একসাথে খেলা করে – –
রাত নিয়নে চাঁদ নিয়ে প্রেমিকারা বিরহের স্বপ্ন রচে।
আবার আহ্লাদী নারী দেখো পুরুষের গা ঘেঁষে পরকীয়া করে।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!