T3 ।। কবিতা পার্বণ ।। বিশেষ সংখ্যায় তুহিন কুমার চন্দ

যখন আমি শীতকে বলি

যখন আমি শীতকে বলি
যা চলে যা এখান থেকে,
আমার কথায় তোয়াক্কা নয়
উল্টে তিনি বসেন বেঁকে।
আমার কথায় রাগ করে সে
সঙ্গে আনেন বৃষ্টি কত,
দার্জিলিংয়ের পাহাড় চূড়োয়
বরফ ছড়ান ইচ্ছেমতো।
বলি তাকে দাঁড়াও তবে
জব্দ আমি করতে জানি,
যতই তুমি জমাট বাঁধাও
ছাঙ্গু লেকের গভীর পানি।
পাহাড় ছুঁয়ে শীত আমাকে
সকাল বিকেল ভেংচি কাটে,
যতই পোড়াই কাগজগুলো
হাওয়ায় এসে ছড়ায় মাঠে।
মেঘের সাথে ভাব করে কাল
বলছি তাকে উপায় বলো,
মেঘ বলল দাঁড়াও খানিক
আমার সাথে একটু চলো।
একখানা লেপ জড়িয়ে গায়ে
গেলাম চলে চাঁদের দেশে,
শীত তাড়াতে চরকা বুড়ি
বলছে উপায় ছদ্মবেশে।
পাহাড়টাকে ফারের কাঁথায়
শক্ত করে ঢাকতে পারো,
জব্দ হবে শীতের দানব
আসবে না আর সামনে কারো।
শীতকে আমি ভালোবেসে
যখন বলি যাওনা চলে
আমার গালে ছোট্ট চুমোয়
শীতের হাওয়া গল্প বলে।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!