সম্পাদকীয়

হোয়াটস কুকিং? হ্যাঁ, শনিবারের একটা রেসিপি ছোট্ট বন্ধুদের জন্যে

আমাকে বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই ছোট্ট বন্ধুরা জিজ্ঞেস করছে লকডাউনে বাড়িতে বসে তারাও ইন্ডোর গেম্স্, অনলাইন ক্লাস, আঁকিবুঁকি ছাড়াও, রান্না করতে ইচ্ছুক। আগুন, হাত-পোড়ানোর ঝঞ্ঝাট, কাটাকুটি, কিছু নেই, শুধু একদম পুঁচকেগুলো শনিবার সক্কাল সক্কাল নিজেরাই এই লোভনীয় ফলের চাট বানিয়ে তাকে লাগিয়ে পারবে বাবা, মা, ঠাম্মি, দাদুদের। শুধু প্রণালীটা দেখে নাও, আর চটপট শনিবারের হৈচৈ শুরু করে দাও:
চাট বানাতে কি কি লাগবে?
• মরশুমি ফল (বেদানা, আপেল, আমের টুকরো, শশার টুকরো, অথবা একটা ন্যাসপাতি)
• পনিরের টুকরো
• ভেজানো স্প্রাউটস (ছোলা, মুগ ভেজানো)
• একটুখানি টমেটো, অল্প একটু পেঁয়াজকুঁচি (মা সেটা করে দেবে) আর এত্ত এত্ত উৎসাহ, হুজ্জুতি আর হৈচৈ করার সকাল!
এইবারে একটা বড় বাটিতে সব একসাথে মিশিয়ে নাও, চামচ দিয়ে একটু নাড়াচাড়া করে, উপরে একটু লেবুর রস ছড়িয়ে দাও। ব্যস চাট রেসিপি একদম তৈরী। এই খাবারটি শুধু যে উপাদেয়, তাই নয়, তার সাথে সুষম পুষ্টির এক দারুণ আয়োজন। শনিবারের সকালের দুষ্টুমি জমে উঠুক বাইরের ফুচকার সাথে নয়, ঘরে বানানো তোমাদের হাতে তৈরী ফলের চাট দিয়ে।
শনিবারের সকাল পার্টি ফুল, সবাই মিলে হৈচৈ করো, একসাথে বুনে নাও পুজোর আগের অনেক অনেক গল্প, আবার পরের শনিবার আসছি একটা ছোট্ট ঘুরতে যাবার জায়গার হদিশ নিয়ে।
ছোটরা, এবং বড়রাও যারা ছোটদের জন্যে লিখতে, আঁকতে, হৈচৈ করতে চাও, তারা শনিবারের সাহিত্য হৈচৈ বিভাগের জন্যে লেখা, আঁকা, পাঠিয়ে দাও এই মেইল আইডি তে:
sreesup@gmail.com / techtouchtalk@gmail.com
পড়তে থাকো, সাহিত্য নিয়ে হৈচৈ করার জন্যে টুক করে ক্লিক করে দাও
www.techtouchtalk.in

শ্রীতন্বী চক্রবর্তী

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!