সম্পাদকীয়

ওয়ার্ডসওয়ার্থের কবিতায় প্রকৃতি-শিক্ষক

যে কোনো রকমের স্কুলের সিলেবাসই হোক না কেন, ওয়ার্ডসওয়ার্থের কবিতা ‘ড্যাফোডিলস’ অথবা ‘দ্য সলিটারি রিপার’ আমরা কেউ পড়িনি, এরকম হয়তো খুব কম সংখ্যক মানুষই আছেন। ওয়ার্ডসওয়ার্থের কবিতায় প্রকৃতি সর্বত্র বিরাজমান। অত্যন্ত সুনিপুণ দখ্যতার সাথে কবি প্রকৃতির সাথে মানবিক, মানসিক আদানপ্রদানের সাহিত্য রচনা করে গেছেন, আমাদের উপহার দিয়েছেন ‘লাইনস রিটেন ইন আর্লি স্প্রিং’ অথবা প্রকৃতির কোলে ছোট্ট ওয়ার্ডসওয়ার্থের বড় হয়ে ওঠা, শৈশব, কৈশোর, যৌবনের প্রস্ফূটিত সময়ের প্রাচুর্য্যেও কি সংকল্প নিয়ে প্রকৃতি, পরাপ্রকৃতির আঃ নির্নিমেষ অন্বেষণ করে চলা। প্রকৃতিই কি আসল শিক্ষক? সামাজিক স্রোতের মূল্যায়ন, কবিতার এক অপরিসীম নীলদিগন্তের উন্মোচন করে কবি আমাদের আবেগতাড়িত হয়ে বারংবার বলে চলেছেন:
“I wandered lonely as a cloud
That floats on high o’er vales and hills,
When all at once I saw a crowd,
A host, of golden daffodils.”
লোনলিনেস, একাকিত্ব, প্রকৃতির মধ্যে নিজেকে সর্বোৎকৃষ্টরূপে নিজেকে নিমজ্জিত করে দেওয়া, বন্ধুবর আরো দুই বিখ্যাত কবি স্যামুয়েল টেলর কোলরিজ আর রবার্ট সাউদের সাথে সংগোপনে অথবা কোনোরকম রাখঢাক না রেখেই অদ্ভুত এক রোমান্টিক, প্রাকৃতিক স্বকীয়তা খুঁজে আনা, এই সবের মধ্যে কবির প্রকৃত, প্রকৃতি-শিক্ষক ভীষণভাবে জ্বাজ্জ্বল্যমান। হয়তো সেই অপার্থিব প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য আহরণের থেকে অনেক দূরে, ব্যাতিব্যস্ততা ছাড়িয়েও তিনি তাকিয়ে থাকতে পেরেছিলেন, এক দৃষ্টে, যেখানে উত্তরোত্তর ‘gazing’-এর বিষয়টি তুলে ধরে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, কত কিই বা দেখা হলো, আর কতটাই হয়তো রয়ে গেলো বাকি, এ যেন তাঁর রকৃতিশিক্ষক তাঁকে এক মহাত্তরণের পথে এক অনিবার্য ভূমিকা পালন করার জন্যে আমন্ত্রণ জানিয়েছে:
“I gazed—and gazed—but little thought
What wealth the show to me had brought:
For oft, when on my couch I lie
In vacant or in pensive mood,
They flash upon that inward eye
Which is the bliss of solitude;
And then my heart with pleasure fills,
And dances with the daffodils.”
দেখে শেখা, হৃদয়ঘটিত আবেগ-আবরণ উন্মোচন আর প্রকৃতির মধ্যে দিয়ে এক বৃহদাকার সৃষ্টিকর্তার দেখা পাওয়া, ও হয়তো শিক্ষক-ছাত্রের এক পরম্পরার নিদর্শন।
শনিবারের সাহিত্য হৈচৈ-এ আবার ফিরবো শিক্ষক দিবসের বেশ কিছু ছোট গল্প, মুহূর্ত ইত্যাদি নিয়ে। ছোট বন্ধুরা, এবং যারা যারা ছোটদের জন্যে কওম আর রং পেন্সিল ধরবে ভেবেছো, চটপট নিজেদের লেখা, আঁকা সবকিছু পাঠিয়ে দাও techtouchtalk@gmail.com / sreesup@gmail.com এ.
শনিবারের আরো মজার জন্যে তোমাদের একটুখানি মাউস ক্লিক করতে হবে: www.techtouchtalk.in

শ্রীতন্বী চক্রবর্তী

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!