রিয়া চন্দ্রর কবিতা

জন্ম ১৯৯৭ বর্ধমান জেলার দুর্গাপুর শহরে, এম.এ তে পাঠরতা। কবিতার এক নতজানু পাঠক ও নিজ কলমের রক্ষক।এককথায় কবিতা অন্তরের অনুভূতির সঙ্গে জড়িত। যেখানে কোমল-কঠোর অনুভবে শব্দেরা তার প্রিয় আস্তানা খোঁজে সেখান থেকেই কবিতা লেখার সফর শুরু হয়। ২০১৮ সালের প্রথম থেকে লেখালিখির জগতে প্রবেশ, প্রথম প্রকাশিত কবিতা 'প্রাগৈতিহাসিক'।এরপর বিভিন্ন লেখা তমোহা, কবিতা আশ্রম, অর্বাচীন, শব্দ সাঁকো, নয় নং সাহিত্যপাড়া লেন, অক্ষর সংলাপ, বৈঠকী আড্ডা, ভিস্, লালমাটি, সংকল্প, হৃদকথন প্রভৃতি পত্রিকায় প্রকাশ পায়।

বিয়োগ চিহ্ন

শৌখিন সুতোয় বাঁধা এক মুষ্টিমেয় প্রাণ
লক্ষ্যের ওপারে পড়ে আছে
যতদূর চোখ যায় সেখানে অজস্র ভুল
                           আড়ালে দাঁড়িয়ে ব্যাখ্যা দেয়
ভাবি আছড়ে মারব যত ভুয়ো সংযম,গোপনীয়তা
অবাধে হসন্ত যোগে আত্মবিশ্বাসের ঝোঁক
অক্ষরে অক্ষরে গড়ে তুলব
নিয়ত ‘বিশ্বাস’ মস্ত ভ্রম
মুহুর্তেই হয়ে ওঠে চির বসন্তের আবাহন
অথবা ক্ষনিকে জানি মেলে ধরতে পারে দৃশ্যান্তর
নীরস আবর্তে ঘুরপাক খেতে খেতে
                                     টলতে থাকে সহজ প্রত্যয়
সমার্থে ‘চাহিদা’ সেও অসামান্য দুর্বল কাঠামো
নিজে চক্রব্যূহ রচে অন্তিম সম্বলটুকু
                           ‌‌                আঁকড়ে বাঁচতে চায়
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!