|| মানচিত্র আর কাঁটাতার, হৃদয় মাঝে একাকার || বিশেষ সংখ্যায় রণিত ভৌমিক

স্বাধীনতার কিছু কথা

স্বাধীনতার কাহিনি যত শুনি, হয় যে রক্ত গরম,
তবু দিনের শেষে প্রশ্ন জাগে, আমরা কি আদৌ স্বাধীন,
নাকি আজও সেই ক্ষতে লাগিয়ে চলেছি মলম?
আগামীর সূর্য স্বস্তির হবে, কেটে যাবে সমস্ত পরাধীনতার দহন,
এই আশাতেই দিয়েছিল বলিদান, বিনয় বাদল দীনেশের মতো স্বজন।
এখন তাঁরা শুধুই স্বপ্নে ভাসে, বিষাদের আকাশ যে বড্ড বড়ো।
দূর থেকে মোদের অন্তরের হিংসা দেখে তোমরা, তবুও কেন রোজ মরো?
স্বাধীনতার কাহিনি যত শুনি, হয় যে রক্ত গরম,
তবু দিনের শেষে প্রশ্ন জাগে, আমরা কি আদৌ স্বাধীন,
নাকি আজও সেই ক্ষতে লাগিয়ে চলেছি মলম?
লোভী-ক্ষোভী সস্তা বিপ্লব, সুযোগ বুঝে পাল্টি খাওয়া,
জাত-পাত দিয়ে রোলারে পিষে ফেলে, মানুষের শিরদাঁড়া।
শহিদদের নামে দেওয়া স্লোগান, এখন বড্ড লাগে মনভোলানো,
সবাই যে স্বার্থপর, সুখ বলতে বোঝে কেবল প্রিয়জনের সঙ্গে আনন্দে দিন কাটানো।
স্বাধীনতার কাহিনি যত শুনি, হয় যে রক্ত গরম,
তবু দিনের শেষে প্রশ্ন জাগে, আমরা কি আদৌ স্বাধীন,
নাকি আজও সেই ক্ষতে লাগিয়ে চলেছি মলম?
কাঁটাতার পেরোনোর সৌজন্যে, আজও কটুক্তি শুনতে হয় অনেককে,
কিন্তু আমরা যে সবাই এক, রেখাটা স্রেফ স্বার্থের জন্য টেনেছে কিছু লোকে।
বারবার ফিরে আসবে সেই দিন, যখন জেগে উঠবে দেশপ্রেম প্রত্যেকের মনে,
আর দিন ফুরলেই দেখতে পাব, অবহেলায় শুয়ে আছে তিরঙ্গা রাজপথের নানা কোণে।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!