কবিতায় মানিক দাক্ষিত

খেলা

খেলা আছে হরেকরকম যাবে কি সব বলা ?
খেলার মধ্যে খেলার সাথে আছে ছলা কলা!
খেলার স্মৃতি বড়ই মধুর নয় যে হেলা-ফেলা,
খেলার সাথে জড়িয়ে আছে সবার ছোটবেলা।
খেলার সাথে দস্যিপনা আছে যে কান মলা,
খেলার মধ্যেই গাছে ওঠা সাঁতার শিখে ফেলা।
খেলার জন্যে বাবার বকা মায়ের হাজার জ্বালা,
অভিযোগের মাত্রা ছাড়া কান যে ঝালাপালা।
সেসব খেলা হারিয়ে গেছে, খেলার ঘরে তালা,
মুঠো ফোনের মাদকতায় নি:সঙ্গ পথ চলা।
লীলা খেলা প্রণয় লীলা আছে জুয়া খেলা,
হরেকরকম খেলা আছে যাবে কি সব বলা!
যারা মহত্‍ সেজে ছদ্মবেশে দিয়ে পরম বাণী,
নিরীহ মানুষের জীবন নিয়ে খেলছে ছিনিমিনি।
তাদের খেলার বিভীষিকা ভাবলে কাঁপে বুক,
বিষের ছোঁয়ায় যাচ্ছে ক্ষয়ে জীবনীশক্তি সুখ।
কোন খাবারে নাইকো ভেজাল বলতে পার ভাই,
সব দেখেও নাই প্রতিবাদ শিবের গাজন গাই।
ওরাই দশের মধ্যমণি আঙুল ফুলে গাছ,
আমরা হলেম চূনোপুঁটি, ওরা হাঙর মাছ।
ওদের খেলা মারণ খেলা নাইকো মানবতা,
চোখের সামনে ঘটছে সকল শ্মশান নীরবতা।
কতদিন আর এমনিভাবে খাবে পড়ে মার,
এবার জাগো পাল্টা মারো করো পগার পার।
জেনো, তোমার কর্ম তোমার খেলা বিশ্ব চরাচর,
বিশ্বমাঝে আমরা যেথায়, সেটাই খেলাঘর।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!