গুচ্ছ কবিতায় হীরক বন্দ্যোপাধ্যায়

মোকাবিলা

মীন হয়ে জলে নামি রূপকথা বালিকাদের স্নানে
তাই ক্রুদ্ধ উদাসীন পাখনায় স্পর্শ দিই
ছায়া অন্ধকারে…

জল বলে কিছু সত্যি আছে ?আছে কোনও
জলজ শ্যাওলা, চুপচাপ শুনে আর মাথা নাড়ে
গেড়ি গুগলি আর মাছরাঙ্গা

জলপরী সে আসলে রাজকন্যা
সে বড়ো লাজুক,লুপ্ত এক সব্যতায় পৌঁছে যায় অনায়াসে, মহাবিশ্বে কত সত্যি মিথ্যা আছে
এই স্পর্শ মিথ্যে নয়
স্বচ্ছ জীবনের সব উপভোগ
তারপর শেষ হলে কুয়াশা মেখে পাখিদের ডানা ধরে
উড়ে যাই ,সম্পর্কের টান বলে কি সত্যি সত্যিই কিছু আছে? আছে কিছু ভীষণ কঠিন অবরোধ প্রপাত…
………ঔপনিবেশিক……

স্মৃতি

নির্জন দ্বীপের মধ্যে আমাদের বাড়ি ছিল একদিন
গত জন্মের স্মৃতির অতল থেকে উঠে আসে
অবিরাম শৈশবের জীবনযাপন
আমার বন্ধু হাবলু আর বাবলুর খেলাধুলা খুব
প্রাসংগিক ছিল আর দু একটা গানের লাইন
যার সবটাই আসলে অপ্রাসংগিক সায়াহ্নের দিকে
ঢলে পড়েছে আজ ,সেও সময়ের দাবি জুড়ে
অনিবার্যভাবেই অক্ষয় স্বর্গবাসী…

এখনো ঘুমের ঘোরে জানলায় পর্দাটা দৌড়ায়
শিরশিরে অনুভুতিতে অন্ধকার
ভোরবেলায় সাংবিধানিক রহস্যের মতো লাগে
এর কি কোনও মানে আছে সিপাহসালার…

জীবনানন্দদাশ ছাড়া নজরুল এমনকি রবীন্দ্রনাথও
আমাকে তখন কবিতা শুনিয়ে গেছে
যেন আমি তাদের চিনতাম গতজন্মে
মেহনতী জনতার মতো স্মৃতি এইসব দুরন্ত পশুর
মতো ছুটে আসে হয়তো মাত্র একঝলক ই
এর কোনো মানে আছে ?

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!