কবিতায় পদ্মা-যমুনা তে দীপায়ন হোসেন

রাত পোহালোনা

আকাশে কোনোদিন চাঁদ ওঠেনি; সূর্যও ডোবেনি
গাঢ় অন্ধকার; রক্ত চুয়ে চুয়ে
লাল হয় শুধু; পুকুরের জল
কেরোসিন তেলে সলতে ভেঁজা কুপি বাতির আলোয়
যে মেয়েটা চুল বাঁধিতো প্রতিদিন
রঙধনুর সাত রঙ; মনের গহিনে জমিয়ে রাখতো
রাত হলে কপালে টিপ আঁকতো
চাঁদের আলোয় জ্বলজ্বল করতো; নিশ্চয়ই
মেয়েটির দোষ এটাই?
রক্ত চুয়ে চুয়ে; লাল হয় পুকুরেরজল
লাল রঙের সূর্যটা ভেসে উঠে অন্ধকারে
রাত পোহালোনা
এখনও উননের পাশে, নাঙ্গা ভূখা শুয়োরেরা
ওশ খোশ করে…
চোখের সামনে মায়ের শরীর; লালসার লালায়
ক্ষত- বিক্ষত করে দেয়
রাষ্ট্র নপূংশক হয়ে গেছে; নাকি আমরা?
প্রতিদিন ধর্ষিত হচ্ছে- শিশু, কিশোরী, যুবতী এবং বৃদ্ধা নারীও বাদ পড়ে না
রক্তে লাল হচ্ছে বাংলার ভূখণ্ড
পরের ঘরে মুখ থুবড়র পড়ে আছে একাত্তরের স্বপ্ন
স্বাধীনতা; ত্রিশলক্ষ শহিদ
দু’লক্ষ মা-বোনের সম্ভম
এখনও ঘুমাতে পারে না
রাত এখনও পোহালোনা

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!