|| মানচিত্র আর কাঁটাতার, হৃদয় মাঝে একাকার || বিশেষ সংখ্যায় দ্বিপান্বিতা বন্দ্যোপাধ্যায়

স্বাধীনতা দিবস

স্বাধীনতা মানে ক্যালেন্ডারে আরও একটা এক্সট্রা ছুটির দিন,
দুপুরে জমিয়ে খাসির মাংস, রাত্তিরে বিরিয়ানি কিংবা চাউমিন।
স্বাধীনতা মানে পতাকা উত্তোলন, লজেন্স, বিস্কুট সাথে শিশুদের নাচ গান;
বেলা দুপুরে ঘুমিয়ে উঠে বিকেলে জমিয়ে আড্ডা মারার প্ল্যান।
স্বাধীনতা মানে ছুটির আমেজে কাটাবো পুরো একটা দিন,
কী হবে দেশের কথা ভেবে, রাজ্যের অবস্থা তথৈবচ গলা অবধি ঋণ।
স্বাধীনতা মানে চায়ের কাপে তুফান, জমিয়ে সমকালীন পলিটিক্স আলোচনা;
সোশ্যাল মিডিয়ায় আগুন ঝরানো পোস্ট, হাজার শেয়ার, দেশভক্তির নমুনা।
স্বাধীনতা মানে সাথে গার্লফ্রেন্ড, বাইক হাঁকিয়ে সোজা শপিংমলের সেলে;
পকেটের টাকা হয়ে যাবে ফাঁকা একটামাত্র প্রেম টিকিয়ে রাখতে গেলে।
স্বাধীনতা মানে ক্লাবে ক্লাবে তারস্বরে বাজছে ডিজে গান,
বিপ্লবীরা উপেক্ষিত আজ, মেলেনা উপযুক্ত সম্মান।
স্বাধীনতা মানে নাইট ক্লাবে উদ্যাম ডিস্কোথেকের রেশ,
হাতে রঙিন গেলাস, চিল্লিয়ে বলো থ্রী চিয়ার্স ফর আমার দেশ।
ভুলেছি আমরা, ভুলতে চেয়েছি কতটা রক্তের বিনিময়ে হয়েছি মোরা স্বাধীন,
কতশত প্রাণ অকালে গেছে বলিদান , তাঁরা পেলোনা প্রাপ্য প্রতিদান।
বিদ্রোহ করে, অভুক্ত থেকে অনশন করে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিল শেষে,
সে সব কাহিনী ইতিহাস আজ, ব‌ইয়ের ভাঁজে ছাপার অক্ষরে সেসব গেছে মিশে।
শহীদের রক্ত হয়েছে ব্যর্থ, তাদের জন্য বাজেনি সানাই,
তথ্য লোপাট, সব গুমনামি, সুভাষ আজ‌ও ঘরে ফেরে নাই।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!