কন্ঠস্বর চয়ন মুখার্জি (পর্ব – ৬)

।। পর্ব ছয় ।।

উদ্বাস্তুদের স্বার্থে বিল পাশ শুনতে হয়েছিল কটাক্ষ

নিজে পূর্ব বাঙ্গালায় জন্মেছিলেন। হাজার হাজার উদ্বাস্তুদের যন্ত্রণা বুঝতেন।
শ্যামাপ্রসাদ তারকেশ্বরে হিন্দু মহাসভার প্রাদেশিক সম্মেলনে বাঙ্গালী হিন্দুর হোমল্যান্ড গঠনের সংকল্প নিলে, ডক্টর রায় তার সঙ্গে সহমত হোন এবং বঙ্গীয় প্রাদেশিক কংগ্রেসের একটি মিটিংয়ে তারাও একই প্রস্তাব গ্রহণ করেন। সে মিটিংয়ে উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং শ্যামাপ্রসাদ।
নুরুল আমিন এবং হামিদুল হক চৌধুরী, পাকিস্তান সরকারের হর্তাকর্তা বিধাতারা দাবী করেছিলেন যে পশ্চিমবঙ্গ থেকে মুসলিমদের জোর করে তাড়ানো হচ্ছে এবং পূর্ব পাকিস্তান থেকে হিন্দুরা যে পালিয়ে আসছে, তার কারণ অমূলক ভয়। অত্যাচার বা হিন্দু মেয়েদের গণধর্ষণের কাহিনী নেহাতই গল্প।
তীব্র প্রতিবাদ করে ডক্টর রায় প্রেস বিবৃতিতে বলেছিলেন,
” If the incidents in East Pakistan do not constitute persecution, I do not know what could be called persecution. I would suggest to the Ministrt of East Bengal to send some responsible people of East Bengal to come one morning at Sealdah Station or at Ranaghat eailway station to satisfy themselves whether there has been an exodus of refugees and if so what are the reqsons thereof.”
হতভাগ্য উদ্বাস্তুদের জন্য পাশ করিয়েছিলেন ” The West Bengal Land Development and Planning Bill, 1948″ । সেই সঙ্গে অস্পৃশ্যতা দূর করার জন্য “The West Bengal Hindu Social Disabilities Removal Bill, 1948″।
প্রথম বিলটি নিয়ে বেঁধেছিল বিতর্ক। বিলটির উদ্দেশ্য ছিল-
১/ Settling refugees and other persons who have migrated to West Bengal under circumstances beyond their control .( যে সব হতভাগ্য উদ্বাস্তু সবকিছু ছেড়ে পশ্চিমবঙ্গে চলে আসতে বাধ্য হয়েছেন, তাদের বাসস্থানের ব্যবস্থা করা)
২/ Establishing satelite towns woth facilities for business, commerce and industry, model villages and agricultural colonies (ব্যবসায়িক বৃদ্ধি, শিল্পের বিকাশ এবং আদর্শ কৃষিকলোনি এবং গ্রাম গঠনের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ)
৩/ creating better living conditions in the urban and rural areas with the object of economic betterment of the local people( গ্রাম এবং শহরে বসবাসকারী স্থানীয় লোকজনের আর্থিক স্বাচ্ছন্দ্য বৃদ্ধির জন্য ব্যবস্থা নেওয়া)
৪/ improving the condition of agriculture, fishery and forestry ( কৃষি, মৎস্যচাষ এবং অরণ্য সংরক্ষণ)
৫/ Developing industries. (রাজ্যকে শিল্পোন্নত করার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া)
জনাব খুদা বক্স আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন যে মুসলিমদের জমি কাড়ার প্রচেষ্টা করছেন ডক্টর রায়। পাল্টা বলেছিলেন ডক্টর রায় যে সব জায়গায় মুসলিম নিপীড়নের কার্ড না খেলাই ভালো।
সবচেয়ে বেশি প্রতিবাদ এসেছিল বিরোধী দলনেতা জ্যোতি বসুর থেকে। জ্যোতি বসু অভিযোগ করেছিলেন, বিলের মাধ্যমে কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচার চলছে। কারোর কথায় কান দেননি ডক্টর রায়।
আজ কল্যাণী, দুর্গাপুর, হাবড়া উপনগরীগুলি তারই দৃঢ়চেতা সংকল্পের ফলপরিণাম। লক্ষ লক্ষ উদ্বাস্তু তাঁর কারণেই মাথা উঁচু করে এই রাজ্যে টিঁকে থাকতে পেরেছেন।
জন্ম ও প্রয়াণবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!