কবিতায় পদ্মা-যমুনা তে বিচিত্র কুমার

শরৎ রাণী

সেদিন মেঘমুক্ত আকাশ ছিলো সমগ্র ভূপৃষ্ঠে
চাঁদের আলোর শুভ্রতা ভরে ছিলো পৃথিবীর চারপাশে,
বিস্তীর্ণ বায়ুমণ্ডলের মাঝে ভেসে চলেছি আমারা দুজনে
সাদাসাদা মেঘগুলো লুকোচুরি খেলছিলো আনমনে।

তোমার পড়নে সাদাসাদা মেঘের নীল রঙের শাড়ী
মনে হচ্ছিলো স্বচ্ছ গগনে উপরে ভেসে বেড়াচ্ছে শরৎ রাণী,
উরুউরু হাওয়ায় উড়ছিলো তোমার এলোমেলো চুল
বেখেয়ালি উড়ছিলো তোমার শাড়ীর আঁচল।

তুমি যেন সাদা ডানা মেলা এক রঙিন প্রজাপ্রতি
ফুরফুর করে উড়ছিলে মনে জেগে প্রেমপ্রীতি,
আর আমি সেই খেলাই বারবার করছিলাম ভুল
তোমার মুখশ্রীর হাসি যেন সাদা মেঘের ফোটা ফুল।

মনের ভেতরে নীরবে উতলা হয়ে যাচ্ছিলাম আমি-
কখনো বা রিমঝিম বৃষ্টিতে কশফুলের আড়ালে মুখ ঢাকছো তুমি,
তোমার রূপের স্নিগ্ধতা বেড়িয়ে আসে জ্যোৎস্নার মতো
বাস্তব আর কল্পনার মাঝে লুকোচুরি খেলতে খেলতে অবিরত।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!