কবিতায় পদ্মা-যমুনা তে আলতাফ হোসেন উজ্জল

নিবেদিত আমন্ত্রণ

মেঘেদের বর্ণিল আভা, ছড়ানো
রুদ্রদীপ
মৃদু অরুণোদয়ের সূর্য সূত্রে গাঁথা,
মুক্তোর মতো রুপ লাবন্য
সৃষ্টির সোনালী ফুল।

ওহে মেঘ বৃষ্টি
চোখের পলকে প্রেম
যতটুকু সম্ভব
সচল হয়, মায়াবতীর মুখে,
সুবার্তা আনন্দ উল্লাস ভরে
এলোচুলের মতো বিছিয়ে রয়
তার পিঠজুড়ে।

দু’টি ঠোঁটের বাঁকা কলস্বর যেনো
অস্পর্শী-বিমূর্ত, ভোরের কন্ঠ নিঃসৃ্ত
সঙ্গীত।
জলে আকাশে জ্বলজ্বল
সদ্য ঘুমভাঙ্গা তরুণী
স্থান কাল ভেদে ঠাঁয় দাড়িয়ে
মৌনতার হৃৎকম্পনে
মৃদু সিম্ফোনীর
ধীরলয়ের হৃদয়ের ঝুলবারান্দা।

মনে উঁকিঝুকি দেয়,
সৃজনশীলতা হৃদয়স্পর্শী
কথোপকথন,
চিত্র ভেসে ওঠে সাইরেন রুপোলী,
রূপবতী তরুণীর সুরম্য
নিবেদিত আমন্ত্রণ।

অগতিক শিল্প, প্রেম যতটুকু
সরল ঊর্ধ্বে উঠে দেহতরণী
অক্টোপাসের ঝাপটা মুখে
সুবার্তা আনন্দ অষ্টাদশ কুমারীর
পূর্ণ হলো ঝকঝকে সূ্র্যালোক।।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!