সাপ্তাহিক ধারাবাহিক উপন্যাসে অভিজিৎ চৌধুরী (পর্ব – ৪৭)

না মানুষের সংসদ

দাদাভাই বলল পক্ষীরাজ আছে ।
চিত্রলেখা বিরক্ত হয়ে বলল, কে দাদাভাই !
কমল জেঠুর ছেলে ।
চিত্রলেখা হেসে বলল,
শ্রোত্রিয় !
হ্যাঁ ।
ওর সঙ্গে তোমার কোথায় দেখা হল ?
দাদাভাই আমাকে কলেজের মাঠে নিয়ে গেছিল । ওর ফুটবলটা ধরতে গিয়ে জামায় কাদা লেগেছে ।
চিত্রলেখা বলল,
দাদাভাই অঙ্কে কতো পেয়েছে জানো ?
কতো ?
একশ-তে একশ । আর তুমি !
আশি পেয়েছি তো !
চিত্রলেখা বলল,
কুড়ি নম্বর ভুল করে এসেছ ! তাওতো কতো নীচু ক্লাসে পড়ো ।
মন বলল –
আমিও বড় হয়ে একশ পাব ।
আর পেয়েছ তুমি! যা দুষ্টু হচ্ছ দিনের পর দিন ।
মা, দাদাভাইয়ের একটা কাঠের ঘোড়া আছে । সেটাও নাকি পক্ষীরাজ ।
হ্যাঁ, পক্ষীরাজে পক্ষীরাজে দেশ ছেয়ে গেছে ।
বলেই না হেসে পারল না চিত্রলেখা । তখন মন চিত্রলেখার গলা জড়িয়ে ধরে মাকে চুমু দিল । তারপর চোখ দুটো বড়ো বড়ো করে বলল –
জানো মা – সেই পাগলা মাস্টারমশাই আমায় ধরেছিল।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!