• Uncategorized
  • 0

কবিতায় সুশোভন কাঞ্জিলাল

বেদুইন ও হারেম

জল একটু জল!
তপ্ত মরু, শুষ্ক গলা
ধুলো আর ধুলো, চারিদিক এলোমেলো
চোখ খোলা দায়, বালির কুজ্ঝটিকায়
ক্লান্ত পথিক দিকভ্রান্ত
হামাগুড়ি বালির বিছানায়
বেশ কয়েকশ মাইল, আরো গেলে ইসরাইল
শুয়ে হেঁচড়ে বাকিটা, এগোনো শুধুই কবিতা…

জল একটু জল!
তপ্ত শরীর, শুষ্ক কামনা
একা বড় একা, জমকালো মরীচিকা
নিসঙ্গ এই হারেমে, যৌবন যায় জমে
চোখের জল অভিমান ভরা
মরুদ্যান সাজানো বিছানায়
মিয়া অন্য কোনো বিবির, আজও প্রতীক্ষাতে শরীর
ফাঁকা পাতার কবি, চিত্রকরের না আঁকা ছবি….

আলো নাকি মরীচিকা
আশার আলো জাগে
ক্লান্ত যোদ্ধা ওঠে, নতুন আবেগ নিয়ে ছোটে
প্রস্থরের মৃত্যুপুরী ছুঁয়ে, যোদ্ধা পরে শুয়ে…

কেনা দাসীর আঁখি দেখে
দলছুট কোনো বেদুঈন
পুরুষ মানুষ দোরগোড়ায়, আল্লার কোন দোয়ায়
একটু বৃষ্টি শরীর চায়, একটু ভেজার অভিপ্রায়ে..

দুটি শরীর, দুভাবে
আশায়, পিপাসা মেটাবে….

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!