• Uncategorized
  • 0

কবিতায় কবিতা পাল

হে-সুন্দর-

যতো ভাবি ভুলে যাবো
ততো তুমি দাড়াও সম্মুখে-
চাঁদের আড়ালে লুকিয়ে পড়লে
জ্যোৎস্না হয়ে ছুঁতে চাও,
ভাবি মিশে যাবো আকাশের গায়ে
ক্ষুধার্ত পাখী হয়ে ডানা ঝাপটাও
যদি করি বাতাসের সাথে খেলা
ঝড় হয়ে সবকিছু তছনছ করে দাও
পাহাড়ের কাছে গেলে ঝরনা হয়ে
গড়িয়ে পড়ো দু’চোখে আমার
ছুটে যায় সাগরের কাছে
তৃষার্ত কামনার ঢেউ হয়ে আছড়ে
পড়ো শরীরে!
অজানা এক শিহরনে নিবার্ক হয়ে যাই
বন্ধ হয়ে আসে দু’চোখের পাতা
এই বাকরুদ্ধতার মাঝে
সেও কি এক সম্মতি?
পাপড়ির মতো চোখ মেলি
চরম সত্য তার মুখে সুন্দরে বাঁধা এ
জীবন
হে সুন্দর-
সুর-তাল-লয় -ছন্দে ভেঙেছ ফুলের
গোপনতা
বলীয়ান বিজয় গৌরবে স্বতঃস্ফূর্ত
ভূমিকা তোমার-
জীবনের প্রতিটি কনায় উজ্জ্বল
হয়ে থাক আগামীকালের ভোর!!
হে সুন্দর-
তুমি ছাড়া এ জগত অন্ধকার
বুঝিনি -অজানা সংশয় অহংকারে
নিজেকে রেখেছি দুরে
যেমন জানতে চায় না নদীর বালুকারা
নদীর জলের গভীরতা
তেমনি জানতে চায়নি কখনো তোমাকে
হে সুন্দর-
তুমি ছাড়া সব যে অধরা…।।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!