অণুগল্পে তুলসী কর্মকার

ঘোর

সেখানে আবাহ আপোষ করে। শরীর নেই। মন জুড়ে খেয়ালের আনাগোনা। ভাবতে ভাবতে ঘড়ি টিক টিক শব্দে কোলাহল জুড়ে। মুক্ত আলো ঝলমলে সকাল। সজাগ কান। বাদামে বাসন্তি ফুল। কুহু কথন। এখানে প্রেম উঁকি দেয়। আলতো বাতাস। দু’হাতে এতো কালো ঘেঁটেছি আনন্দ পাবে বলে। বিশ্বাস করিনি বসে থাকা বনে মন আছে। নদী কথা বলে। মগ্ন প্রজাপতি। সবই সাময়িক। নীতিবিরোধ বলে কিছু নেই। অসীম অনন্তে যা কিছু মাটিকে উর্বর করে। সাজানো লভ্যাংশে ঢেউ। উথাল-পাথাল। কাড়ানাগড়া। আরো সুখ দীঘিতে আছে। ক্লান্ত যৌনতার নীরব আফসোস। সুযোগ চলে যায়। কাজে লাগে না সময়। ভোগ আর ভোগান্তির কাছে থেকে সভ্যতা কপাট খুলে। সেখানে আকাশ নীল। মেঘেরা খেলা করে। সেসব পথ এখনো বাকি। ফাঁকি দিয়ে যায় কিছু সময়। তবু প্রেম স্বার্থ অর্থ এড়িয়ে এগিয়ে চলে আপন খেয়ালে…….
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!