দিব্যি কাব্যিতে তথাগত চক্রবর্তী

আর্জি

মা কালী, ওরা তো এমন জীবন চায়নি…
বিশ্বাস করো মা শেতলার কিরে…
অভাব তবুও অভাব থাকতে দিও না…
অন্তত দিও সামান্য গুড় – চিড়ে…

এই শহরের অলিতে গলিতে দেখো…
শত শত লোক ক্ষিদে পুষে বিছানায়…
বিছানা বলতে ফুটপাত, ফুটো ছাতা…
নুন অনতে তার পান্তা ফুরিয়ে যায়…

সারাদিন খেটে ছোটো হয়ে আসা চোখ…
স্বপ্ন দেখার যন্ত্রণা তবু আছে…
তাই তো সেখানে নতুন জন্ম নেয়…
অভাবের সাথে লড়তে লড়তে বাঁচে…

ছেলেগুলো ছোটো মাথাতে ভর্তি জট…
শীতের দাপটে গাল যেন খড়া জমি…
আমরা তবুও নিরবে এড়িয়ে যাই…
আমাদের যেন সময় ভীষণ দামী!

দামী সময়ের ছোটাছুটি ভান কোরে…
হাজার হাজার মিথ্যুক রাস্তায়…
তারাই আবার অনলাইনের ফুড…
মধ্য বিত্ত জব্দ তো সস্তায়…

সস্তায় থাকো। ভালো তো বাঁচিয়ে চলা…
সঞ্চয় থেকে সামান্য কিছু দিও…
তাতেই জুটবে একটা পেটের ভাত…
এবার প্রমিসে এমনই দিব্যি নিও…

ভাত মানে জেনো নির্মল হাসি মুখ…
হাসি মানে জেনো কতো কতো দিন খায়নি…
সত্যি বলছি মা শেতলার কিরে…
মা কালী, ওরা তো এমন জীবন চায়নি…

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!