কবিতায় শম্পা সাহা

হাসি

ঝরা পাতা ঝরে যায় তবু কিছু রয়ে যায় বাকি
দেওয়া নেওয়া হিসেবের গরমিল মাপজোক ফাঁকি
এক হাতে দূরবীণ
আকাশ মুচকি হাসে দূরে
ঝরা পাতা ঝরে পড়ে মেঘেদের আড়ে ঘুরে ঘুরে।
কাঁপে শুধু না পাওয়ার দীর্ঘশ্বাস বড় যন্ত্রণা
সহজে জীবন দেবে ছার? এ জীবন ভাঙাচোরা মন্ত্র না।
উত্তর দিতে হবে যে সব প্রশ্ন আজো অধরা
সদ্য প্রসবা তার রক্তাক্ত ছিন্ন ফেলা অমরার মত
যত হেলাফেলা ছেলে খেলা ভাবধারা ফিরে ফিরে আসে
তবুও জীবন দেখো আড় চোখে মুচকিই হাসে।
ঠকিয়ে জীবন আমি জিতে যাবো নিশ্চয়ই শেষে
শেষ হাসি হাসবই আমিও জীবনে অবশেষে।

খুশির ভেলা

ভীষণ মন খারাপ হলে সামনে এসে বসি
শিউলি যখন মেঘলা মনে
খুব একাকী সঙ্গোপনে
একটা দুটো টুপটুপিয়ে সামনে পড়ে খসি।
তোমার খোঁপায় গন্ধরাজের পাইনা দেখা আর
রাগ করেছে
মুখ বুঝেছে
বিষণ্ণ সে বিকেল বেলা পাইনা গন্ধ বাহার।
মন খারাপের মন আজ খারাপ তাই নিয়েছে ছুটি
শরৎ আকাশ
নীল মেঘেতে
নদীর ধারে পাই যে দেখা কাশের হুটোপুটি।
শরৎ গন্ধে শারদীয়া সকাল ডাকে সোনালী হাতছানি
খুশির মেজাজ
শিউলি সলাজ
ঘাসের মাথায় শিশির যে গায় সুরের আগমনী।
আসছেন মা মন খারাপের তাই তো বিদায় বেলা
ঢাকের বাদ্যি
সকাল অবধি
চল ভেসে যাই আজ আকাশে ভাসিয়ে খুশির ভেলা।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!