|| বাইশের বাইশে শ্রাবণ একটু অন্যরকম || বিশেষ সংখ্যায় সমীরণ সরকার

 প্রণাম

বিশ্ব যখন সংকটে আজ দেখি তোমার‌ ছবি,
তোমার বাণী শক্তি যোগায় যোগায় সাহস কবি।
জীবন তোমার উদাহরণ বিশ্বভুবন মাঝে,
দুঃখ শোকে মগ্ন যারা ,তোমার বাণী খোঁজে।
তোমার গানের পরশ পেলে‌ মনের দৈন্য ঘোচে,
অখিল ভুবন হয় যে আপন, নতুন ভুবন রচে।
তোমার ‘সুধা’,তোমার ‘অমল’ ঘোচায় বন্দি দশা,
মুক্ত করে ঘরের বাঁধন, আকাশ আলোর দিশা। শিকল ভাঙা গানে কারা মুক্ত করে কারা,
বাঁধন ছিঁড়ে আগল ভাঙ্গে অসীম ‘মুক্তধারা’।
‘বিশু পাগলা’ ‘নন্দিনী’রা আগল ভাঙ্গার গানে,
শক্তি যোগায় শ্রমিক বুকে লড়াই করার টানে।
‘রতন’, ‘সুভা’, ‘নিরুপমা’ আজিও জগত মাঝে,
তোমার বাণীর পরশ পেয়ে ইচ্ছে কুসুম রচে।
ওগো প্রিয়, তোমার কথায় সুরে গানে গানে,
প্রণাম জানাই সজল চোখে বাইশে শ্রাবণে।

বাইশে শ্রাবণে

ঠাকুরবাড়ি জন্মেছিল অবাক করা ছেলে,
লেখায় রেখায় মাতায় জগত মশগুল সক্কলে।
ছোটবেলায় যায়নি সেতো ইস্কুলেতে কোনো,
ঘরে বসেই পাঠ নিয়েছে হরেক রকম জেনো।
সেই ছেলেটাই লিখেছিল হাজার হাজার গান,
লক্ষ হৃদয় জিতে নিল, ভরিয়ে দিল প্রাণ।
গল্প নাটক উপন্যাসে মানুষেরই কথা,
লিখেছিল সেই ছেলেটা সারা জীবনটা।
ছন্দে কথায় সাজিয়ে ছিল হাজারো কবিতা,
ছোট বড় সব মুখেতেই আজিও ফেরে তা।
‘রবি ঠাকুর’এই নামেতেই সবাই তাঁকে জানে,
প্রণাম জানাই বিশ্ব কবি ,বাইশে শ্রাবণে।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!