কবিতায় সায়ন পালিত

বর্তমানে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর বাংলা বিভাগের ছাত্র।

অহং

ভোরের নরম রোদ মেলেছে সোনালী চাদর,
এই রোদ যেন আমার চির অহং;
তাই তাকে বেঁধেছি ভোরের স্নিগধতায়,
আর ছায়ার মতো মানব ধ্বজা করেছি সুদূরপ্রসারী।
তবু প্রতিনিয়ত সেই আলো আমার কুণ্ঠা বাড়ায়,
ভয় হয় আত্মশ্লাঘায় যদি বিহ্বল হয়ে পড়ি!
যদি সেই ছায়া গুটিয়ে আসে পায়ের প্রান্তরে!
তবে কাঠফাটা রোদের মতো জ্বালাবে আমাকে,
জ্বালাবে পাশে থাকা অসাড় মানুষগুলোকে।
ধীরে ধীরে রবি এগিয়ে যাবে চোখ রাঙিয়ে,
আর আমার ছায়া দেবে পিছু পথে পাড়ি।
আমার ধর্ম ধ্বজা লুটিয়ে পড়বে মাটিতে,
মিশে যাবে মৃত মানুষের ভিড়ে;
গোধূলির আলো-আঁধারিতে হবে চিরপতন।
তাই তাকে বাঁধতে চাই ভোরের আদিম মায়ায়,
কারণ এই মায়া বুঝতে আমি চিরকালই অপরাগ।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!