মার্গে অনন্য সম্মান শ্রীমতি হীরা ঘোড়াই (সেরা)

অনন্য সৃষ্টি সাহিত্য পরিবার

সাপ্তাহিক প্রতিযোগিতা পর্ব – ৬৯
বিষয় – শহীদ ক্ষুদিরাম

হাসিমুখে

মেদিনীপুরের হাবিবপুর গ্রামে একটি ছেলের জন্ম হলো।
তিন মুঠো ক্ষুদের বিনিময়ে মাসির কাছে পালন হল।
সেই থেকে ছেলেটির নাম ক্ষুদিরাম রাখা হলো।
স্বদেশকে মুক্ত করার জন্য ক্ষুদিরামের স্বপ্ন ছিল।
দেশকে মুক্ত করার জন্য দুঃখ, কষ্ট, বিপদ বরণ করলো।
নবাব সিরাজ-উদ-দৌলার পতনের পরে।
বাংলার স্বাধীনতা ব্রিটিশদের কবলে।
ক্ষুদিরাম ও প্রফুল্ল চাকী মিলিত হয়ে।
ব্রিটিশ বিচারক, ম্যাজিস্ট্রেট কিংসফোর্ড আছে ভেবে।
গুপ্ত হত্যা করার জন্য ক্ষুদিরাম বোমা ছুঁড়ে।
সেই বোমায় দুই জন ব্রিটিশ মহিলা মৃত্যু হয়ে পড়ে।
ব্রিটিশ মহিলাদের হত্যার জন্য, ক্ষুদিরামের গ্রেপ্তার হল।
বিচার সভায় চূড়ান্তভাবে ক্ষুদিরামের ফাঁসির আদেশ এল।
ফাঁসির সময় ক্ষুদিরামের বয়স ১৮ বছর ৭ মাস১১ দিন হয়েছিল।
ভারতবর্ষের কনিষ্ঠতম বিপ্লবীর হাসিমুখে শহীদ হলো।।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!