ছোটগল্পে শ্রীপর্ণা ঘোষ

তুতু তখন কী করবে?

তুতু খুব ভালো মেয়ে। সে ক্লাস ফোরে পড়ে। সে পড়াশুনাতেও ভালো। সে পরীক্ষার সময় একটুও ভয় পায় না। কিন্তু সে এবারে খুব ভয় পাচ্ছে। কারণ কিছুদিন আগে সে যখন লালগড় গিয়েছিল তখন একটা ঘটনা ঘটেছিল।
সোমবার পরিবেশ পরীক্ষা। পরিবেশ বইটার বেশিরভাগটাই পশুদের চ্যাপ্টারে ভরা। তার সেই ঘটনাটা একটা পশুকে নিয়েই হয়েছিল। বেড়াতে গিয়ে তুতু বেশ মজাতেই ছিল। তারা লালগড়ে যেখানে ছিল সেই বাড়িটা একদম বনের পাশে। একদিন সকালে দরজা খুলে তুতু দেখল তাদের উঠোনে কাঁঠাল গাছের নীচে লালগড়ের রয়্যাল বেঙ্গল শুয়ে আছে। তাকে দেখেই একটা বড় হাই তুলে বাঘ বলল, ” তোমাদের চা হল তুতু? চায়ের সঙ্গে গোটা দশেক বিস্কুট দিও কিন্তু।”
তুতু সেই দেখে অবাক হয়ে গেল।
বাঘ বলল, ” কী হল তুতু দাও। সকালবেলা সেই যে অভ্যেস করেছি তাই চা আর বিস্কুট না খেলে হয় না।”
তুতুর হাত পা কাঁপতে শুরু করল। বাঘ এবার রেগে উঠল।
তুতু কাঁপতে কাঁপতে রাম্না ঘরে গিয়ে এক প্যাকেট বিস্কুট নিল। মা যে চা টা করেছিল, সেটাই নিয়ে এসে সামনে রাখল। বাঘ বিস্কুটগুলো গব গব করে খেতে থাকল আর তুতু তার মাকে বাবাকে ডাক দিল। বলল, “বাগানে রয়্যাল বেঙ্গল ঢুকেছে।”
মা বাবা এল। তাকে বলল, “কোথায়? কোথায়?”
তুতু বলল, ” ঐ তো ওখানে ছিল।” তাকিয়ে দেখল বাঘ নেই।
মা আবার বলল, “কোথায়?”
তুতু বলল, “ওই তো কাঁঠাল গাছের নীচে চা বিস্কুট খাচ্ছিল।”
তখনই অনেক লোক এল। তারা বলল, “আপনাদের এখানে কি কোনো বাঘ এসেছে?”
বাবা বলল, “হ্যাঁ, আমার মেয়ে এখানে একটা বাঘ দেখেছে বলছে।”
ওরা বলল, “ওটাই সেই কথা বলা বাঘটা। কে জানে আবার কোথায় গেল বেটা!”
তারা বলল, “আমরা জঙ্গলে যাচ্ছি পায়ের ছাপ দেখে দেখে।”
বাবা বলল, “আমাদেরও নিয়ে চলুন।”
জঙ্গলে সবাই পায়ের ছাপ দেখে দেখে যাচ্ছে। এক ঘন্টা পরে তুতু হারিয়ে গেল। তুতু হারিয়ে গিয়ে বাঘটাকে দেখতে পেল। তুতু বলল, “বাঘ মামা চলো, ওরা তোমাকে খুঁজছে।”
বাঘ বলল, “তুমি কি কিছু জানো না? ওরা আমাকে মারতে চাইছে। তুমি কি পড়াতেও পড়ো নি আমাদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে কেন?”
তুতু বলল, “ঠিক বলেছ। আচ্ছা আমি তোমার কথা কাউকে বলব না।”
বাঘ বলল, “তুমি আমাকে তোমার সঙ্গে নিয়ে যেতে চেয়োনা। আমি ঠিক তোমাকে খুঁজে খুঁজে চলে যাব একদিন।”
এইসময় মা বাবা চলে এল। বলল, “তুতু কোথায় গেছিলিস?”
বাঘটার খোঁজ ওরা জানতে পারেনি কিন্তু তুতু এখন ভয় পায় বাঘ যদি তার কাছে চলে আসে! বাঘ তো বলেছিল, সে আসবে। আসলে সবাইতো বাঘটাকে ধরে ফেলবে। মেরে ফেলবে। মেরে চামড়া ছাড়িয়ে বেচে দেবে। হাড়গুলোও গুঁড়ো করে বেচবে।
পরীক্ষা চলার সময়েও তুতু স্কুলের জানলার বাইরে কাঁঠাল গাছটার দিকে তাকিয়ে বাঘটার কথাই ভাবছিল। ভাবছিল এখন যদি সে গাছের নীচে বাঘটাকে দেখতে পায়! বাঘ যদি বলে ওঠে, ” আমি এসেছি তোমাকে খুঁজতে খুঁজতে। “
তুতু তখন কী করবে?
🐯🐆🐅🐯
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!