মার্গে অনন্য সম্মান সুমিতা চৌধুরী (সেরার সেরা)

অনন্য সৃষ্টি সাহিত্য পরিবার

সাপ্তাহিক প্রতিযোগিতা পর্ব – ১১২
বিষয় – পিকনিক/ আচার্য্য/ অভিমানী

অভিমানী নীরবতা

নিশ্ছিদ্র অন্ধকারে, নিবিড় নিস্তব্ধতার মাঝে,
আজ নীরবতা বড্ড জোরালো ।
তার হাজার অভিমান- অভিযোগের
হিসাব-নিকাশ নিয়ে এসেছে সে।
কিছুতেই থামাতে পারছি না আজ তাকে,
হাজার মিথ্যে স্তুতি, মন ভোলানো প্রতিশ্রুতিতেও,
ভুলছে না সে আজ!
না, সে কাঁদছে না,
শুধুই কথার হাতুড়ি পিটছে।
সারা জীবনের সব বোঝাপড়া যেন আজই করবে সে।
এতো কাটাছেঁড়া, এতো খননের মাঝে
দগদগে ঘা বেরিয়ে পড়ছে ।
কোনো কাপড়েই ঢাকছে না তা।
একদিকে ক্ষত ঢাকার চেষ্টায়,
আরেকদিক উলঙ্গ হয়ে যাচ্ছে ।
নীরবতা যে এতো জোরালো চাবুক কষায়, বুঝিনি আগে ।
আজ মনে হচ্ছে এর থেকে কোলাহল ভালো ।
বা আর্তনাদ, হ্যাঁ, তাও ভালো ।
চোখের জল, হ্যাঁ, তাও।
তারাও সঙ্গ দেয়।
কিন্তু এই নীরবতা যে কেবলই, মুহুর্মুহু চাবুক কষায়!
সঙ্গ সেও দেয় যদিও,
তবে দগদগে ক্ষত থেকে রক্তক্ষরণের পর,
সেই ক্ষতটা চিন্তিত করে বলে, “এটাই তুই “,
” ওপরের খোলোসটা নয়।।”

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!