T3 ।। কবিতা পার্বণ ।। বিশেষ সংখ্যায় শুভ আহমেদ

১| দক্ষিণের জমিন মারা গেল

হ্যাঁ, এখন আপনি মৃত
আপনার সন্তানরাও মারা গেছে
চুক্তিমতে এ বিক্রীত লাশ কোম্পানির মাত্র।
আপনি কাঁদতে পারবেন না !
সাদা পাথরে আপনার মুখ ঢাকা আছে।
আপনার ঐশ্বর্য
এখন ঐতিহ্যের স্মৃতি কথা !
যে রাত ছিলো
পুর্ণিমা এসে খেলত আপনার বুকে
বাতাসের শোঁ – শোঁ গানে
সে বুকে এখন পদ্মা সেতুর কংক্রীটের বাস।
আজো সে রাতে জ্যোৎস্না নামে
খোলা বিহীন প্যারালাইজড দেহের মতো
অর্থব পড়ে রয় রূপালী পাথরের ওপর।
এ চোখ মরতে শিখেছে
আপনিও মৃত
আপনার সন্তানরাও আরো কোথায় মরতে যাচ্ছে।।

২| লোপা’র জন্য একটি কবিতা

কতদূর যাবে বল? পথ তোমায় ছাড়বে না !
যেমন ছাড়েনি আমায় বেরহমী সময় –
এপিটাফকৃত এক শীতের কাছে
অথবা, তোমার চলে যাওয়া শেষ বসন্তে
হয়েছে সব পাথর বাগান।
তবুও ঘুরেফিরে আসতে হয় আমাদের –
যেখানে সূর্যকে কেন্দ্র করে পৃথিবী প্রদক্ষিণরত
তদ্রুপ সূর্যও পৃথিবীর জন্য দূরে অপেক্ষমাণ ।
আমাদের প্রেম, পৃথিবী ও সুর্যের মতো
দূরত্ব এবং সত্য।।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!