সমীপেষু

অরণ্যকাণ্ড

অরণ্যের কথা বলবো আজ।
কীভাবে ছায়া সবুজে মেশে
কীভাবে কোকিলের সুরে সূর্য ওঠে
কীভাবে ধোঁয়া হয় চার ধার
সব বলবো
সেই পাখিটা খুব ডাকতো
নীল ডানাদুটো খুব জমকালো ময়ূরকণ্ঠী
তার গায়ে বিকেল আসতো অরণ্যে
সেই ঝুড়ি গাছাটা বেশ বড় অন্ধকার
ধোঁয়া ওখানেই বেশি
প্যাঁচাগুলো ডাকতো সন্ধের মুখোমুখি
ভোররাত সবে নিবিড় আলিঙ্গনে
কোকিলের যুগ্মস্বর
সূর্যকেই ডাকতো বোধহয়
দিবা ভাগে সবে প্রহর তিন
সেই গভীর সবুজে বেজে উঠতো
ভীমপলশ্রী
রবির গানে ওই রাগে
বিপুল তরঙ্গ রে…
গাঁইতিগুলো পাথরে পাথরে গাইতো
আমি শুনতাম
মনে মনে তখন একবুক অরণ্যকাণ্ড

শাল্যদানী

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!