কবিতায় বলরুমে প্রদীপ গুপ্ত

বৃক্ষ সমীপে যাই চলো

বৃক্ষ সমীপে যাই চলো।
শিখে নেই চলো কি ভাবে অংগ কর্তনকেও
মেনে নিতে হয় অনায়াস নির্বিকার ভাবে।
সয়ে যেতে হয় অনুচ্চারণীয় বিষণ্ণতায় আপন
রক্তক্ষরণ।

বৃক্ষ সমীপে যাই চলো।
শিখে নিই কিভাবে হয়ে উঠতে হয় আশ্রয়ণীয়।
পাখী পক্ষি, কাঠবেরালি, এমন কি চিতাদেরও
আশ্রয় দিয়ে যেতে হয় আপন বুকের মাঝে নীরব
প্রশ্রয়ে।

বৃক্ষ সমীপে যাই চলো।
শিখে নেই চলো কিভাবে বিলিয়ে দিতে হয় আপন
বৈভব। বহু কষ্টে ফুটিয়ে তোলা ফুল, ভবিষ্যৎ
রক্ষাকারী ফল, ছিনিয়ে নিয়ে যায় এসে অধিকার
বোধে নির্লজ্জ লুঠেরারা।

বৃক্ষ সমীপে যাই চলো।
শিখে নেই চলো, কিভাবে ধরিত্রি সন্তান হয়ে
রক্ষামন্ত্র জেনে নিতে হয় ধরিত্রির। কতদিন আর
সইতে হবে সব অত্যাচার নীরবে, ছায়া দিয়ে যেতে হবে ধরিত্রির বাকী সব দুর্বৃত্ত সন্তানদের অকাতর
সহনশীলতায়। কিভাবেই বা ধ্বংস করতে হয় সব
অত্যাচার একদিন।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!