দিব্যি কাব্যিতে নবকুমার শীল

মানুষের নিউরোন জন্মের পর থেকে শুধু ধ্বংস হয়


প্রিয় লেখাটিকে ফের লিখে রাখি নিজের হাতে কোথাও , লিপিকর হয়ে । খাতার পাতায় শুধু মরা শব্দ লিখি । কী হয় ও সব লিখে , বাল ?
নিজেকে ও অন্যদের কাটাছেঁড়া করে মর্গের ভিতর বসে আছি । সেই মর্গের রাজা আমি । হাসি পায় মাথা আর অন্ডকোষ শুকিয়ে যাচ্ছে । সম্ভবত সুইসাইড করবো ।
মালা জপার থলির ভিতরের অন্ধকারে তিনি বসে বসে কী যেন হাতড়ে চলেছেন । কোনও আত্মহত্যার কারণই আমরা জানতে পারি না । যে ভাবে জয়েসের ‘ইউলিসিস’ রয়ে গিয়েছে এ জীবনে আর পড়া হবে না তাকে ।
জানি , না – পারাটা বড় কথা নয় , কিন্তু কিছু একটা খুঁজে চলেছি । অর্থ নয় , কীর্তি নয় , স্বচ্ছলতা নয় , আর এক বিপন্ন বিস্ময়.. !
কোন কোন রাতে মৌমিতার অভ্র – ঝরানো নগ্নতা আমাকে উত্তাল ঢেউয়ের ভিতরে ওঠায় – নামায় , তখনই একদিন বাজারে একটি নিটোল ক্যাপসিকাম দেখে মনে হয়েছিল , ক্যাপসিকামটির সবুজ ত্বক যদি পেতাম । এই প্রথম জীবনে উচ্চাশী হতে চাওয়া ,
অর্থাৎ একটি ক্যাপসিকাম হওয়ার সাধ হয়েছিল । ।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!