গারো পাহাড়ের গদ্যে মালা মিত্র

হরেকৃষ্ণ

যখন তখন ঘ্যানঘ্যান,আবদার, একি মামা বাড়ির মোয়া নাকি, যে চাইলেই পাওয়া যায়?ওর হয়েছে তার হয়েছ, আমারও চাই, এই বায়নাক্কা নিয়ে সপিং মল এ ঘুরে ঘুরে পছন্দের, জুতোটা জামাটা হয়ত পাওয়া যায় ঠিকই, কিন্তু
ডাকলে সাড়া নেই,মন যেন কোন স্বপ্ন রাজ্যে সাঁতার কেটে বেড়াচ্ছ, উড়ুউড়ু চুল,দুরুদুরু বুক, দেখেই যেন বোঝা যায়, দুর আসমানের অনাঘ্রাত রঙে ডুবুডুবু, সে এক দ্রবিভুত অবস্থা, অন্যকে এ সুখ বোঝানো যায় না, যার হয়, তার হয়। নয় থেকে নম্বর যে কোনো সময়ই এমতাবস্থা প্রাপ্ত হতে পার, এর রেডিমেড রেসিপি টা কারো জানা নেই।
সে অবস্থা হাজার আফিং, চরস, গাঁজা খেয়ে বুঁদ হয়ে উর্ধমুখী থাকার চেয়ে গুরুতর।
তাই কেউ চাইলেই ‘ নশে সে চড় গয়ে , ওয়ে কুড়ি নশে সে চড় গয়ী অথবা’ বা ‘ নশা হী নশা হ্যায় ‘ পরন্তু ইয়ে নশা রাম, হুইক্সি,স্কচ,শ্যাম্পেন,হর টাইপ কা এ্যালকোহল ককটেল মিলাকে পী লেনে সে ভী খতরনাক হ্যায় জনাব।
তাই বলি এদিক ওদিক মুখ মারলেই সে স্বর্গীয় সুখ পাওয়া যাবে তেমনটা কিন্তু মোটেই নয়।
যখন সে আসে নিরব, সামলাবার বিন্দু মাত্র অবকাশ না দিয়ে আত্মায় চেপে বসে।একসাথে হাজার কারেন্ট’ জোর ধাক্কা ধীরে সে ‘।
ক্লাসের ওর হয়েছে আমার নেই, ওরা কেমন লাভ বাডস্ হয়ে ভিক্টোরিয়, নন্দন, আউটরাম ঘাট হাতে হাত জড়িয়ে চষে বেড়াচ্ছে,আমার কেন নেই এ কাঁদুনি গাইলে কিছু হবে না সুধীজন।
হা প্রেম কোথা প্রেম বলে হাতে মোমবাতি নিয়ে কোনা কোনা ছাপ্পা মারলেও যাকে ধরা দেয় না তাকে ধরা দেয় না,আর একবার যদি বাগে পায় এ্যায়সা পাঞ্জা কসে যে নিমেষে ধরাশায়ী করে।
সারাজীবন এই ছাড়, এ্যাই ছাড়না ভাই, কিন্তু বান্দা নাছোড়বান্দা।
পীরিতি কাঁঠালের আঠা এমনিই জোড়ালো।
এখনকার কবি অবশ্য ফেবিকলএর জোড়ের সন্ধান পেয়ে গেছে।
যাহা কিছু চটচটে তাহাই প্রেম নয়।
প্রেমের জোয়ারে ভাসা দোঁহাদুঁহুই জানে পাল তুলেএগিয়ে যেতে।
আরে মশাই চোখ কান খোলা রাখুন, মনের দরজা জানলা হাট করে দিন, মিলিলে মিলিতে পারে অরূপরতন।
সারাক্ষণ টুকিটাকি ঘিরে রাখলেও, প্রেম ছেয়ে থাকেআপাদমস্তক।
মিষ্টি সুগন্ধ, ফুলেল বাস,নাতিশীতোষ্ণ আরামদায়ক হাওয়ার মত সুখের সপ্তম স্বর্গের মত ছেয়ে থাকে সারাজীবন ভর।
আর যার কপাল ফুঁটো সে বঞ্চিত থাকে এ রসে।সে বড় হতভাগা যার জীবনে প্রেম আসেনি।
তার জীবন যেন ‘থোর বড়ি খাড়া, খাড়া বড়ি থোরের মত একঘেঁয়ে মামুলি।
জীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ পাওয়া তার পাওয়া হয় না।
প্রেমপেতে যে সারাক্ষণ জুড়ে জুড়ে থাকতে হবে এমন কথা নেই।
কোরোনা কালে মাস্ক পড়ে দুরত্ব বজায় রেখে,ভালবাসা রক্ষার মত, দেহে দেহে নয়, মনে মনে বেঁধেবেঁধে থাকার নামই বোধহয় প্রেম।
প্রেম নিয়ে অবশ্য নানা মুনির নানান মত।
আমার মতে যাকিছু প্রকৃতির মত,ঝর্ণার মত স্বচ্ছ বিনা আয়াসে আগাপাছতলা ধুইয়ে দেয় পূর্ণ স্নানে, ভালবাসায়,শ্রদ্ধায়।
সে কখনো কাছে, বা দূরে যেখানেই থাক, প্রেমের অভিজ্ঞতা তার আমৃত্যু সম্বল, সঞ্চয়, না কোনো ট্যাক্স দিতে হয়, দিনে দিনে বেড়ে চলে চক্রবৃদ্ধি হারে।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!