মহালয়ার প্রাক্কালে অসুর বধ Home Tv এর পর্দায়

কথায় বলতেই বলে, বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। যা এমন এক জিনিস চোখ ফেরানো দায়। যার টানে ছুটে আসে দেশ বিদেশ থেকে মানুষ। আর তারই প্রারম্ভের একটি অংশ হল মহালয়া। যা দিয়ে শুরু হয় দেবীর মর্ত্যলোকে আগমন। মহালয়া আসলেই যেন দুর্গাপুজো শুরু। এই পাঁচটা দিনের গুরুত্বই আলাদা।
আর মহালয়া! সে তো যেন অবিস্মরণীয় জিনিষ। যে একবার বীরেন্দ্র কৃষ্ণ ভদ্রের মহালয়া শুনেছে তার কাছে অমৃত ও যেন বড্ড ফিকে। সেই দরাজ কণ্ঠে এই ঘোর কলিযুগেও যখন বেজে ওঠে, “অশ্বিনের শারদ প্রাতে, বেজে উঠেছে আলোক মঞ্জরী.. ধরণীর বহির আকাশে…” প্রতিটা মানুষ যেন চোখের সামনে দেখতে পায় মায়ের আগমন। ঠিক এই একটা দিনে যেন রেডিও গুরুত্ব হয়ে যায় অপরিসীম। মহালয়া থেকে দুর্গাপুজো আসলে হলো অসুর বধের পালা। কথায় বলে দেবী মহামায়া অর্থাৎ দেবী দুর্গা মহালয়ার দিন থেকে শুরু করে দশমী পর্যন্ত সময় লেগেছিল মহিষাসুর কে বধ করতে। তাই দেবী কে মহিষাসুরমর্দিনী ও বলা হয়। তাই রেডিও তে দেবীর এই অসুর বধের কাহিনী শোনানো হয় স্তোত্র পাঠ বা চন্ডী পাঠের মধ্য দিয়ে সংস্কৃত ভাষায়। এবং এই মহালয়া শুধুমাত্র রেডিও এর শোনা তেই সীমাবদ্ধ নেই। তার রঙিন প্রতিচ্ছবি দেখানো হয় টিভির প্রতিটা পর্দায়। সেটাও যেন ভারী মজার এক বিষয়। দেবীর অসুর বধ শিহরিত করে ছোট থেকে বড় সকলকে। তাই প্রতি বছরের মত এবছরও Home Tv নিয়ে এসেছে মহালয়া 25th অফ সেপ্টেম্বর ঠিক ভোর 5টায়। পরিকল্পনা ও পরিচালনা – অমিতাভ পাঠক, সঙ্গীত – সাহেব, নৃত্য পরিচালনা : রাকেশ,পায়েল,সম্রাট, কন্ঠে – অনিন্দিতা,বাপ্পা, চিত্রগ্রহণ – পাপাই, সম্পাদনা – সুবীর মণ্ডল, এক্সিকিউটিভ প্রোডিউসার – শান , মেকআপ – বাপ্পা,কল্যাণী, পোশাক পরিকল্পনা – শান্তনু মণ্ডল, এবং মা দুর্গার নাম ভূমিকায় – প্রহেলিকা মণ্ডল। দেখতে ভুলবেন না কিন্তু। so stay tuned.

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!