কবিতায় কুণাল রায়

“শেষের কবিতা”

শেষের কবিতায়,
লাবণ্য অমিত,
মিলিত হয়নি সেদিন,
চায়নি রবীন্দ্রনাথ,
এক কল্পনার মায়া বুনতে,
পৃথিবীকে বিমুগ্ধ করতে!
সেই নামে,
তৈরী হল এক বিলাসবহুল প্রাসাদ,
তিলোত্তমা নগরীর ফ্ল্যাট!
বাস করে অসংখ্য স্মৃতি,
থাকে বাবা মা,
এক মাত্র মেয়ের বিয়ে,
আয়োজন বিপুল,
প্রস্তুতি তুঙ্গে,
তবু ঘটে গেল,
এক অঘটন!

ঈশ্বরের নিষ্ঠুর পরিহাস,
নিয়তির এক অসীম পরীক্ষা,
সেদিন দ্বিপ্রহরে,
ট্রেনে উঠতে গিয়ে,
পা পিছলে,
বরণ করল এক-
অকাল মৃত্যু!
কল্পনা তবু বেঁচে আছে,
প্রত্যাশা অক্ষুণ্ন!
দশ নম্বর ,
শেষের কবিতা ফ্ল্যাটে!

রুনা,
মেয়ে তাঁদের,
জানে তাঁরা ফিরে আসবে না-
কোনদিন!
তবু-
মায়ার বন্ধন!
রিক্ত নীড়,
চোখের জল,
এক মাত্র অবলম্বন,
কোন অপরাধে,
অজানা আজও,
থাকবে আগামীকালও,
বহুদিন,
চিরদিন!!

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!