হৈচৈ কবিতায় গৌতম বাড়ই

চলো চলে যাই

ধরো আমি দার্জিলিং গেলাম
কিন্তু গেলাম না,
গেলাম আমি তার নিচে রংটং
মেখে কিছু পাহাড়ের রঙ-চঙ,
তারপর হিমালয় ছাড়লাম।
নেমে এলাম তিস্তার ডিঙ্গি-তে
মন শুধু চেয়ে দেখে চির সেই সবুজে,
বাপুরে কী ভয়ানক শব্দ
স্রোতের কল্লোলে সবকিছু জব্দ,
ডিঙ্গি ছেড়ে ভয়ানক বাঁচলাম।
ধরো আমি দীঘাতেই গেলাম
কিন্তু গেলাম না,
গেলাম আমি বগুরান জলপাই
লালতট শুয়ে আছে লাল- লাল কাঁকড়াই,
মনে হয় সাগরে লালিমার বিছানায়।
ঘুরে-ফিরে ফের আসি শহরে
আমাদের ঠিকানার ঐ যে ভেতরে,
গোলোক ধাঁধার বাড়ি গাড়ি মানুষে
আমাদের স্বপ্নের নগরের ফানুসে,
মন তাই পড়ে থাকে প্রকৃতির ভাবনায়।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!