T3 শারদ সংখ্যা ২০২২ || তব অচিন্ত্য রূপ || বিশেষ সংখ্যায় দিলীপ কুমার ঘোষ

বাসবদত্তা

এই মুহূর্তেই কি তোমার সঙ্গে আমার দেখা হওয়ার কথা ছিল?
কেন জানতে চাইছ এ কথা?
বিশেষ কারণ আছে নিশ্চয়ই!
কী সেই বিশেষ কারণ?
কবি তো তোমার মুখে বসিয়েই খালাস, ‘আজি রজনীতে হয়েছে সময়, এসেছি বাসবদত্তা।’ কিন্তু বর্তমানে বাসবদত্তার মনোবাসনা কী, সে বিষয়ে তো কবি নীরব!
তোমার অভিলাষ তো কবি আগেই জানিয়েছেন!
ওঃ, নারীর হৃদয় তাহলে অপরিবর্তণীয়-স্থাবর বস্তু! সেখানে একবার যা তৈরি হয়েছে, তা কোনওভাবেই বদলাতে পারে না? পরিবর্তিত পরিস্থিতিতেও তাকে সেই একই জায়গায় আটকে থাকতে হবে!
না, একদমই নয়। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে মনোজগত পরিবর্তনশীল। কিন্তু একই বিষয়-বস্তু-ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে তার ঘনঘন পরিবর্তন প্রগলভতারই পরিচায়ক, আর সেই চাঞ্চল্য ঠিকও নয়।
কী ঠিক, কী বেঠিক, কে তার বিচার করবে? তোমার কাছে যা সঠিক, আমার কাছে তা বেঠিক বলে পরিগণিত হতেই পারে। উল্টোটাও সমান সত্য।
আমার এই আগমনে তুমি কি প্রীত হও নি? আমি কি তাহলে আজ এসে ভুল করলাম!
এ ভুল-ঠিকের প্রশ্ন নয়। যে-হৃদয় একদিন আমার সহসা অঙ্কুরিত প্রেমের আবেদনে সাড়া দিতে পরাঙ্মুখ হয়েছিল, সেই হৃদয়ের স্নেহার্দ্র-সেবা আজ আমার মনে এক তীব্র জ্বালা-বিবমিষার উদ্রেক করছে! আমার হৃদয় কিছুতেই তোমাকে নিঃসঙ্কোচে গ্রহণ করতে পারছে না। সেদিন আমার সমর্পণকে তুমি ধর্তব্যের মধ্যেই আনোনি। আর দেখো, কী অদ্ভুত ব্যাপার, এই মুমূর্ষু অবস্থাতেও আজ তোমার শুশ্রূষাকে আমার অত্যাগসহন মনে হচ্ছে না।
আমি তবে আসি কল্যাণী!

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!