ক্যাফে কাব্যে চিত্রা মুখার্জী

আমি শহীদ বলছি

যেদিন আমি জন্মেছিলাম
সেদিন-ই আমার জন্যে সাজানো হয়েছিল
শ্মশানে চিতা।

মৃত্যুর জন্যেই আমার জন্ম।

আমি একজন নির্ভীক, বীরযোদ্ধা।
আমি ভীষণ গর্বিত –
তোমাকে দিতে পেরেছি সুনিদ্রা,
সুনিশ্চিত জীবন,
আমার মৃত্যুর বিনিময়ে।
তুমি ভালো থেকো, সুখে থেকো,
আষ্টেপৃষ্ঠে আবদ্ধ থেকো
স্বজন পরিজনদের সঙ্গে নিয়ে।

যুদ্ধক্ষেত্র ই হলো আমার শেষ পরিচয়।

আমি অঙ্গীকার বদ্ধ দেশমাতার কাছে,
যে কোন মূল্যেই শৃঙ্খল মুক্ত করবো
আমার দেশমাতা কে।

যুদ্ধক্ষেত্রে হয়তো আমার মৃত্যু হতে পারে।
শুধু একটাই অনুরোধ –
আমার মৃতদেহটা পাঠিয়ে দিও
আমার বাড়ির ঠিকানায়।

সেখানে দেখবে, আমার ফুটফুটে ছেলেটা
কফিনের ওপর আমার মাংসপিন্ড টা
শক্ত করে ধরে বলবে –
” তুমি আমার কথা রাখোনি বাবা,
বলেছিলে, আসবে ফিরে যুদ্ধ শেষে।”

আমার প্রিয়তমা, সে হয়তো
রক্তমাখা কাপড়টা কে টুকরো টুকরো করে ছিঁড়বে
আর তার মধ্যে তন্ন তন্ন করে খুঁজবে
ভবিষ্যত কে।

আর আমার জন্মদাত্রী মা
সে শহীদের মা হয়েও
বুকফাটা কান্নায় বেসামাল হয়ে আছড়ে পড়বে,
সু-সজ্জিত ফুল রাশির ওপর,
আঁতুড়ের গন্ধ নিতে।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!