কবিতায় পদ্মা-যমুনা তে বিচিত্র কুমার (গুচ্ছ কবিতা)

১| ভালোবাসার স্মৃতিসৌধ

তুমি আমার হৃদয়ে ছিলে স্মৃতির অলংকার
ভালোবেসে তোমাকেই করেছিলাম নির্মাণ,
আমার প্রেমের বাগানে আসতে তুমি মিষ্টি হাসিতে
অনুভবে খুঁজে পেতাম তোমার চুলের ঘ্রাণ।

এলোমেলো চুলগুলো দুলছিলো দক্ষিণা বাতাসে
একদিন তুমি এসে বসেছিলে আমার খুব কাছে,
চেনা চেনা লাগছিল খুব যেন তোমাকে
দেখেছি কোথাও যেন আগে বাগানে পাশে।

অবশেষে পাথর কেটে পেয়েছিলাম তোমার মনের সন্ধান
তুমি তুলেছিলে আমার হৃদয়ে অজানা প্রেমের তুফান,
দুচোখের ছন্দময় প্রেমের রোমান্টিক কবিতার মতো
একাকী নীরবে শুধু তোমাকেই চায়তো পাগল মন।

পঞ্চভূতো দেহ দিয়েছিলাম তোমার কাছে জলাঞ্জলি
কোমল মনের কুসুম জানে শুদ্ধ প্রেমের ব্যাকুল খানি,
প্রেমের কব‍্যে যদি তোমাকে পড়তে পারতাম তাহলে হয়তো
তোমাকে বুঝাতে পারতাম কতটা ভালোবেসেছিলাম স্রোতস্বিনী।

যুগান্তরের ঘুর্ণিপাকে আজ তুমি নেই আমার বুকে
কিন্তু সামনে রয়েছে আমার দূরন্ত চিকিমিকি রৌদ্র,
একদিন তোমাকে ভালোবেসে প্রেমের তাজমহল গড়তে চেয়েছিলাম
আজকে সেটাই চোখের অশ্রুতে রূপ নিয়েছে ভালোবাসার স্মৃতিসৌধ।

২| তোমার হাতটি ধরে চাঁদে হেঁটেছি

তোমার স্বপ্নগুলো হাঁটছিলো রঙিন আলোতে
তোমার ছায়া পড়ছিলো পলকে পলকে,
তোমার র্দীঘলকালো চুলগুলো উড়ছিলো:
উতলে হাওয়াই ঝলকে ঝলকে।

আমি শুধু চেয়ে চেয়ে দেখছিলাম-
তোমার মুখোশ্রীর একঝলক মিষ্টি হাসি,
হঠাৎ উড়ে গেল সাদা এক প্রজাপতি
আকাশে তারাফুল ফুটেছিলো রাশিরাশি।

পলক ফিরাতেই তোমার অপলক দৃষ্টি
ঝিরিঝিরি পড়ছিলো শিশিরের বৃষ্টি,
টুপ করে হৃদয়ে প্রেম আসে একটি
তোমাকে লাগছিলো দারুণ মিষ্টি।

প্রিয়তমা প্রিয়তমা বলে,কখনো আমি-
রঙিন পাতায় লিখিনি প্রেমের চিঠি,
কিন্তু প্রেমে পড়ে তোমার হাতটি ধরে সেদিন:
কল্পনাতে চাঁদের উপর তোমাকে নিয়ে হেঁটেছি।

৩| আকাশনীলা

ও নীল আকাশের পরী আয় না কাছে আয়
মনটা তোকে ভীষণ চায়,
টানা টানা দুচোখ মেলে কি চাও;
নীরবে কেন দূরবিদেশে যাও?

কে তোমাকে ডাকে ভিনদেশে;
ভিন্ন গ্রহ থেকে প্রেমিকের বেশে?
তুমি যেয়ো নাকো আর
ফিরে এসো বুকে আমার।

তুমি কি তার প্রেমে পড়েছো;
নাকি মেঘের আড়ালে লুকিয়েছো?
শুধু একবার বলে যাও,
আর যেয়ো নাকো তুমি,একটু দাঁড়াও?

আকাশনীলা বুঝেছি –
তোমার হৃদয়ে রয়েছে খাত;
তুমি চাও মুক্ত আকাশ
তুমি চাও মুক্ত বাতাস।

৪| তোকে মনে মনে ছুঁই

তুই আমার ভালোবাসার পুষ্প জুঁই
তোকে বারবার মনে মনে ছুঁই,
তুই প্রেমের ফুটন্তকলির মিষ্টি সুঘ্রাণ
তোর কাছে হারিয়েছি আমার পরান।

তুই তুললি আমার মনে প্রেমের তুফান
ভালোবেসে তোর মুখোশ্রী করেছি নির্মাণ,
তোর কথা ভেবে আমার দিন কেটে যায়
তোর মুখ ভেসে ওঠে স্বপ্নের পর্দায়।

তোর উড়ন্ত চুম্বন যখন ঘুমের মাঝে পাই
আমি তখন তেপান্তরে হারিয়ে যাই,
তুই আমার বুকে এসে করিস বসবাস
কিন্তু বারবার কেন পালিয়ে যাস?

শুনেছি প্রেমের মৃত্যু নাই –
চল দুজনে প্রেমের আগুনে পুড়ে হই ছাই,
যদি ছেড়েও যেতে হয় এই সুন্দর পৃথিবীটাই
তবু হাসি মুখে বলে দিব টাটা বাই বাই।

৫| গোলাপ কাঁটা

আমি রোজ পাতার ফাঁকে লুকিয়ে লুকিয়ে
একটা লাল টুকটুকে গোলাপ কে দেখি
নিত‍্যদিন তুলবো বলে,কিন্তু জানা ছিল না-
সব গোলাপের বুকে তো সুবাস থাকে না সেকি?
কিছু কিছু গোলাপের শরীরে কাঁটা থাকে শতশত
যা প্রেমিকের হৃদয় কে করে রক্তাক্ত ক্ষতবিক্ষত।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!