কবিতায় বিপ্লব গোস্বামী

১। ইচ্ছেধারী

যেমনি করে শিশু খেলে
বাল‍্য বয়সে,
ভাঙে গড়ে মাটির পুতুল
মনের হরিষে।
ক্ষণে স্মরে, ক্ষণে ভুলে
ক্ষণে গড়ে, ক্ষণে তুড়ে।
অমনি করে খেলছো তুমি
মানব জীবন নিয়ে,
সুখ, দুঃখ, আনন্দ, বেদনা
জয়,পরাজয় দিয়ে।
রাজা, ফকির, মুনিব, নকর
বড়, ছোট করে,
অহং, লোভ, স্বার্থ দিয়ে
পাঠিয়েছো ভবের মাঝারে।
যেজন অহংকারে মত্ত হয়
করো তার পতন,
দীনের করো রাজা তুমি
আপন ইচ্ছে মতন।
উচ্চ হয়ে নিম্নে যারা
করে যখন হেলা,
তুমি তখন তোমার মত
শুরু করো খেলা।
উঁচুরে করো নিচু আবার
নিচুরে করো উঁচু,
উচ্চ শ্রেণীর অহং নাশে
কলঙ্ক দেও পিছু।
রাজারে করো ভিখারী আবার
ভিখারীরে করো রাজা,
অহংকারীর অহং নাশে তুমি
বড় পাও মজা।

২। প্রশ্ন

যুগ এখন আধুনিক
শতক একবিংশ।
সভ‍্য যুগের ভদ্র মানুষ
কারা তবে হিংস্র ?
বরবরতার আদি যুগ
কবে গেছে অস্ত।
আধুনিক যুগের আগুয়ান মানুষ
সবাই স্ব স্ব ব‍্যস্ত।
অরাজকতার রাজ‍্য নয়
স্বাধীন দেশ সত‍্য।
কম্পিউটারের জিজিটাল যুগে
ঠিকঠাক সব তথ‍্য।
তবে কারা করে জাতি হিংসা
কোন মহা রোগে ?
বিবস্ত্র লক্ষ্মী কেন সভ‍্যতার যুগে ?
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!