সাহিত্য ভাষান্তরে বাসুদেব দাস

ন্যানো জীবন

রাজীব বরুয়া
মূল অসমিয়া থেকে অনুবাদ

এই শরীরটাকে আমি আবার তুচ্ছ করেছি
যাকে কখনও নিজেই চিনতে পারি না
কী প্রয়োজন এই বিরাট বপুর
যেখানে সেখানে এত ভিড়-ভীতি ,বক্রতার যুদ্ধ-বিপ্রহ
পদের ওপরে পদ আর বিপদ
মূল সমস্যা আজ জোড়াতালি
কে কার জন্য রাখে ছোট-বড় অবকাশ

আমার নতুন চারা গজিয়েছে
যুগপৎ খসিয়ে ফেলেছি শরীরের মাংসল ভাব
আমি পূর্ণরূপে প্রকাশিত হতে চাই
সবাই দেখুক আমার সকাল
শরীর আর গর্ভের মেটে রঙ

উর্ধমুখী গাছের সম্মুখের
পচা ডাল-পাতার প্রয়োজন নেই
ছোট কায়া একটা হলেই আমার উদযাপন হবে
হয়তো তুমি ভাবতে পার
পুরুষালি দেহের বল পুর্ণ করে যৌবনের প্রয়োজন
বইতে পারে সময়ের ফসলের আঁটি
মেটাতে পারে পাথর খেয়ে হজম করা ক্ষুধা
যৌবনের সারথির প্রয়োজন কত
যৌবন নিজেই একটি বিপুল শক্তি

ক্ষুদ্রতায় বেঁচে থাকুক আমার বিশাল ইচ্ছাধারী জীবন
বাধাহীন গভীর আশাবাদের আয়ু…

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!