T3 ।। কবিতা পার্বণ ।। বিশেষ সংখ্যায় অমিয়কুমার সেনগুপ্ত

টুসুপরবের গান

লাবণ্য তার ছড়িয়ে দিল পাখা।
হিমেল হাওয়ায় বৈভব যায় ঢাকা?
পোষপাবনের হিমাক্ত রোদ মেখে
মনের পথটি চলছে এঁকেবেঁকে ….
কাঁসাই নদী চৌডলময় । মেলা ….
টুসুর গানে বেশ জমেছে খেলা ….
খেজুররসের মিষ্টি পানা …. তাড়ি ?
সম্পর্কেও ফাটল আড়াআড়ি?
পুরুইলার জাতীয় উৎসবে
ঊষার আগেই প্রাণের বিকাশ হবে ;
হাঁড়িয়া আর পিঠের মিশেল, জলে
ভাসবে টুসু বাতাস উতল হলে।
সূর্যদেবের ঘুম ভাঙে না ; গানে
রাতের উজান ঠেলে কারা আনে
শস্যসবুজ জীবন-কণিকাটি ….
যৌবনময় শীতের সজল মাটি —-
গা কাঁপে না, মন কাঁদে কোন্ শ্বাসে!
এমনিভাবেই পোষপরবের মাসে
দুঃখ এবং আনন্দ যায় মিশে
যুবতীবুক হিমপরশের শীষে ….
ধরণী গো, যাচ্ছি সাহেববাঁধে
দেখতে, জীবন কেমন ভাষায় কাঁদে!
কুঁখড়ি ডাকে, ভোর তো সবে হোলো —-
টুসুমা গো, এবার দুয়ার খোলো ….
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!