T3 || আমি ও রবীন্দ্রনাথ || সংখ্যায় অনিন্দিতা ভট্টাচার্য্য

রবি নিয়ে যতই ভাবি ততই যেন রোমহর্ষক হয়ে উঠি। আসলে রবি নিয়ে এত মাতামাতি হলেও কতটুকুই বা চিনি আমরা তাকে। বা সত্যি কি নূন্যতম কিছুই জানি আমরা তাঁর ব্যাপারে। এক থেকে আরেক ওপার গুন সম্পন্ন এক ঠাকুর ছিলেন তিঁনি। আমার কাছে রবি হলো ছোট থেকে বড় হয়ে ওঠার এক সুন্দর রূপকথার গল্প। যেখানে আমার জীবনের প্রতিটা পর্যায়ের সাথে আমি রবি কে রিলেট করতে পারি। কখনো জীবনের ওঠা পড়া সামলানো তো কখনো বা স্কুল ফেরত প্রথম প্রেমের হাওয়া। মনে মনে আলগা হাসির ফাঁকে দু-কলি গলা দিয়ে বেরিয়ে যেত ” প্রাণ চায় চক্ষু না চায়, মরি একি তোর দুস্তরলজ্জা”… এছাড়াও আরও কত কী। রবি যেন জীবনের ওতপ্রোততা। তাঁকে ছাড়া প্রতিটা পদক্ষেপ যেন ফ্যাকাশে। কখনো বর্ষা দিনে, “এই মেঘলা দিনে একলা, ঘরে থাকে না তো মন/ কবে যাবো কাছে পাবো ওগো তোমার নিমন্ত্রণ”। বর্ষা হোক কিংবা শীত অথবা হোক না তাপের দাবদাহ গ্রীষ্ম সবকিছুই যেন রবির খাতার অন্তর্গত। চাইলেই মিলিয়ে নেওয়া যায় সব থেকে সব। তাই রবি নিয়ে সত্যি আর বেশি কিছু বলার নেই। রবি মানেই এক বিশাল খোলা আকাশ, রবি মানেই মনের মাঝে দোদুল এক বাতাস, রবি মানেই অল্প কিছু নয় তো তার সম্ভার, রবি মানুষ হয়েও ঠাকুর তাই।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!