সাপ্তাহিক শিল্পকলায় “ইজম ও শিল্প রচনার বিবর্তন -১”- লিখেছেন আলবার্ট অশোক (পর্ব – ২৬)

ভূমিকাঃ বাংলাতে ইউরোপ আমেরিকার শিল্পসংস্কৃতির যে আন্দোলনগুলি বিশ্বের নানা দেশে সংক্রমণ হয়েছিল, তার বিশেষ ইতিহাস বাংলাতে পাওয়া যায়না। আমাদের পশ্চিমবঙ্গের আর্ট কলেজগুলিতে ( গভর্ণমেন্ট আর্ট কলেজ, রবীন্দ্র ভারতী, শান্তি নিকেতন) কোথাও আমার ব্যক্তিগত ধারণা, ছবি ভাস্কর্য নিয়ে পড়াশুনা উন্নত মানের হয়না। উন্নত মান বলতে আমি এই বোঝাতে চাইছি, সমকালীন বিশ্বের শিল্পকলার রূপরেখা নিয়ে কিছু হয়না। সেই মান্ধাতার আমলের সিলেবাস চলছে। আমার এই ধারণার পিছে যুক্ত এই, যদি সেখানে সময়োপযোগী কাজ কর্ম হত, তাহলে গত দশকগুলি জুড়ে আপনি তাদের বার্ষিক প্রদর্শনীতে তার প্রকাশ দেখতেন। বা বাংলার শিল্পীদের সুনাম সমকালীন বিশ্বের আন্তর্জাতিক স্তরে বা জাতীয় স্তরে (সর্বভারতীয় স্তরে), কয়েকজন শিল্পীর নাম শুনে গৌরব বোধ করতেন। সর্ব ভারতীয় স্তরে, মকবুল ফিদা হুসেন, তায়েব মেহতা, ফ্রান্সিস নিউটন সুজা, বাসুদেব গাইতোন্ডে, সৈয়দ হায়দার রাজা, থেকে সুবোধ গুপ্তা প্রমুখ যারা গত দশকগুলিতে জাতীয় স্তরে ও আন্তর্জাতিক স্তরে সুনাম রেখেছেন, বাংলাতে থেকে আপনি পাবেননা। অথচ এই বাংলার সুনাম ১০০ বছর আগে সারা ভারতে প্রতিষ্ঠিত ছিল। ঠাকুর পরিবারের শিল্পীরা, নন্দলাল বসু, যামিনী রায়, হেমেন মজুমদার বিনোদ বিহারী, রামকিঙ্কর প্রমুখ।
একটা রাজ্যের পরিচালন বিভাগের মেধা ও দক্ষতার দ্বারা একটা রাজ্যের শিল্প বিকাশ হয়। সারা ভারতের ২৯ টি রাজ্যের প্রথম ১০ টি রাজ্যের তালিকাতেও বাংলার নাম পাবেননা। রাজনীতি ও পরিচালন বিভাগের দস্যুপনামি, রাজনৈতিক খুনখারাপি বাংলাতে যুক্ত ফ্রন্টের আমল থেকে যেভাবে বেড়েছে। আজও সমান তালে চলেছে। এখানে যা শিল্প কৃষ্টির নাম ছিল তা ধুয়ে মুছে গেছে। স্বাধীনতার ৭৩ বছর পরেও বাংলাতে শিক্ষা সংস্কৃতির বই পাওয়া যায়না। স্নাতকোত্তর বা উচ্চমাধ্যমিকের পর থেকে কোন বিশেষ বিষয় নিয়ে বাংলাতে পড়াশুনার বই নেই। বাংলাতে আপনি ডাক্তারি, ইঞ্জিনীয়ারীং, বিজনেশ ম্যানেজমেন্ট ইত্যাদির বই বাংলাতে পাবেননা। বাংগালি প্রকাশনা ৫ দশক আগে কলেজস্ট্রিট পাড়ায় যারা বারো মাসেই সাহিত্য নিজের গাঁটের টাকায় প্রকাশ করতেন তাদের ৮০ ভাগ প্রকাশক নেই। বাংলা প্রকাশন শিল্পের অবস্থা সংগীন। আর্ট কলেজে না্ম মাত্র পড়াশুনা হয়।স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমান সময়ে রাজনৈতিক খুন খারাপির আখরা হয়ে গেছে। রাজনীতি গিলে ফেলেছে বাংলার সকল রকম প্রতিষ্ঠান। এবং বাংলার মানুষ তা পছন্দ করে বলেই হয়েছে। বাংলা আত্মহত্যা করবে, ধীরে ধীরে বিষ প্রক্রিয়ায়। এই অবস্থায় আমি মড়ার আগে যদি কিছু সাহায্য বাংলায় করে যেতে পারি শিল্পের ও শিল্পীর ইতিহাস লিখে, যদি বাংলার কোন কাজে আসে। আমার ক্ষুদ্রতম প্রার্থনা মার্জনা করবেন।
ইজম ও শিল্প রচনার বিবর্তন
ফিউচারিজম (Futurism (Italian: Futurismo) একটি শৈল্পিক এবং সামাজিক আন্দোলন যা বিশ শতকের গোড়ার দিকে ইতালিতে শুরু হয়েছিল। এই আন্দোলনের প্রধান বিষয় ছিল গতি, প্রযুক্তি, যৌবন, সহিংসতা এবং গাড়ি, বিমান এবং শিল্প নগরের মতো জিনিসগুলি। এর প্রধান ব্যক্তিত্ব হলেন ইটালিয়ান ফিলিপ্পো টমাসো Filippo Tommaso মেরিনেটি Marinetti, উম্বের্তো বোকিওনিUmberto Boccioni, , কার্লো কেরিCarlo Carrà, ফরচুনাটো দেপেরো Fortunato Depero, গিনো সেভেরিনি Gino Severini, গিয়াকোমো বালা Giacomo Balla এবং লুইজি রাশোলো Luigi Russolo। এটি আধুনিকতার গৌরব অর্জন করেছিল এবং ইতালিকে মহিমা এনে দিয়েছিল। কিউবিজম ইতালীয় ফিউচারিজমের শৈল্পিক স্টাইল গঠনে নেকটা সাহায্য বা অবদান রেখেছিল। ঐ সময়ের গুরুত্বপূর্ণ ফিউচারিস্ট রচনাগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, মেরিনেটির ফিউচারিজমের ম্যানিফেস্টো Marinetti’s Manifesto of Futurism, বোকিওনির ভাস্কর্যটি মহাকাশে ধারাবাহিকতার অনন্য রূপ Boccioni’s sculpture Unique Forms of Continuity in Space, বালার চিত্রকর্ম অ্যাবস্ট্রাক স্পিড + সাউন্ড Balla’s painting Abstract Speed + Sound, এবং রাশোলোর দ্য আর্ট অফ নয়েজ and Russolo’s The Art of Noises ।
যদিও এটি মূলত একটি ইতালীয় আন্দোলন ছিল,কিন্তু দেখা গেছে রাশিয়াতেও সমান্তরাল একই ভাবনার আন্দোলনের কাজকর্ম ছিল, সেখানে কিছু রাশিয়ান ফিউচারিস্ট পরবর্তীকালে তাদের নিজস্ব গোষ্ঠী সৃষ্টি করেছিল; অন্যান্য দেশে হয় কয়েকজন ফিউচারিস্ট ছিল নয়ত তারা ফিউচারিজমে অনুপ্রাণিত হয়ে কাজকর্ম করেছে। ফিউচারিস্টরা ছবি, ভাস্কর্য, সিরামিকস, গ্রাফিক ডিজাইন, শিল্প নকশা, অভ্যন্তর নকশা, নগর নকশা, থিয়েটার, ফিল্ম, ফ্যাশন, টেক্সটাইল, সাহিত্য, সংগীত, স্থাপত্য এবং এমনকি রান্না সহ শিল্পের প্রতিটি মাধ্যমে অনুশীলন করেছিল (every medium of art, including painting, sculpture, ceramics, graphic design, industrial design, interior design, urban design, theatre, film, fashion, textiles, literature, music, architecture, and even cooking)।

Futurism, Cubism, press articles and reviews (source: Wikipedia)

(source: Wikipedia)
এই ফিউচারিজম আবার কিছুটা অবধি আর্ট ডেকো Art Deco, কনস্ট্রাকটিভিজম Constructivism, পরাবাস্তববাদ Surrealism এবং দাদা Dada এবং আরও একটি বৃহত্তর ডিগ্রি যথার্থতা Precisionism, আলোকরশ্মিবাদ Rayonism এবং উদ্বোধবাদকে Vorticism শিল্প আন্দোলনগুলিতে প্রভাবিত করেছিল।
প্রেসিসনিজম বা কিউবিস্ট রিয়েলিজম

Source: Wikipedia
(precision মানে শব্দবাহুল্যহীনতা, স্পষ্টতা, যথার্থতা।এই মানেটাকে সামনে রেখে ভাবনাকে বাস্তবিকভাবে মূর্ত করে জ্যামিতিক রূপ দেওয়া (Precisionism কে Cubist Realism বলে; শিল্প উপস্থাপনের একটা স্টাইল যা কোনও বস্তুকে বাস্তবসম্মত উপস্থাপন করা হয় এবং জ্যামিতিক রূপের উপর জোর দিয়ে। বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে এই আংগিক ছিল যেখানে ছবি ভাস্কর্য বা বস্তু্র মৌলিক কাঠামোগত রূপকে হ্রাস বা সরল করে দেওয়া হত এবং বিমূর্ততাবাদ এবং বাস্তববাদের সংমিশ্রণ দ্বারা গঠন করা হত।)
১৯২০ থেকে ১৯৩০, এই সময়টাতে, আমেরিকাতে, আমেরিকান আধুনিকতাবাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসাবে পরিচিতি পেয়েছিল, এটা ইউরোপে কিউবিজম বিকাশের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিল এবং উত্তর আমেরিকার শিল্পায়নের দ্রুত বিকাশের সাথে হেনরি ফোর্ডের মতো (Henry Ford (July 30, 1863 – April 7, 1947) একজন আমেরিকান শিল্পপতি এবং ব্যবসায়িক ম্যাগনেট, ফোর্ড মোটর কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা এবং মধ্যবিত্ত আমেরিকানরা জনগণের জন্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে অটোমোবাইল শিল্প ও উৎপাদন শুরু করে বিখ্যাত হন। তার এই উৎপাদন বিংশ শতাব্দীর জনজীবনে গভীর প্রভাব ফেলেছিল। শিল্পী ভাস্কররা উদ্বুদ্ধ হয়ে নব আংগিকে শিল্পরচনা করেন কিছুটা ঘনক ও বাস্তব ঢংগে। এর সাথে আর্ট ডেকোর দৃষ্টিভঙ্গির তকিছুটা মিল রয়েছে।
Precisionism সাথে সবচেয়ে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত শিল্পীরা হলেন চার্লস ডেমুথ Charles Demuth এবং চার্লস শিলার Charles Sheeler । জর্জিয়ার ও’কিফির Georgia O’Keeffe র ছবিও অনেকটা এই আংগিকে । (Charles Demuth (1883-1935 ) American Painter, Charles Sheeler (1883-965) American,Painter/ Photographer; Preston Dickinson (1891-1930) American Painter, Elsie Driggs (1898-1992)American Painter , Francis Criss (1901-1973)British/American Painter, Ralston Crawford (1906-1978)Canadian/American Painter, Edmund Lewandowski (1914-1998)American Painter।)
কোনও ধরণের বিস্তার narrative না রেখে বা বা বিষয়বস্তুর দিকে নজর দিয়ে এই শিল্প আংগিক গড়ে উঠেছিল ও বিকাশ হতে হতে, ধীরে ধীরে বিমূর্তির দিকে Abstraction এ মিলিয়ে গেল এবং ফলে প্রেসিসনিজমের গুরুত্ব ও প্রভাব হিসাবে ম্লান হয়ে যায়।
প্রেসিসনিজম, খুব বড় করে শিল্পী সম্মেলক দের আন্দোলন নয়। অল্প কয়েকজনের প্রচেষ্টা। এবং কাকতালীয়ভাবে, ১৯২৫ সালে প্যারিসে একটা বড় ও অভিজাত প্রদর্শনী হয়, নাম Internationale des Arts Decoratifs et Industriels Modernes ও আমেরিকাতে ১৯২৭ সালে Machine-Age বলে একটা প্রদর্শনী হয়। এই প্রদর্শনীগুলির কোন পরিচিতি বা মুখপত্র/ ইসতেহার ছিলনা। দুটি প্রদর্শনী প্রেসিসনিজমকে অন্তর্ভুক্ত করে। মানুষ দেখল কিউবিজম ও ফিউচারিজমের ছায়া তাতে।শিল্পী যারা ছিলেন তাদের জাজের ধরণ ছিল “কিউবিস্ট-রিয়েলালিস্ট”, “ইমামকুলেটস”, “স্টেরিলিস্ট” বা “আধুনিক ক্লাসিস্ট” (“Cubist-Realists”, “Immaculates”, “Sterilists” or “modern classicists”) এর মতো বিভিন্ন লেবেল দ্বারা সনাক্ত। প্রেসিসনিজমের শিল্প আংগিক পরবর্তী কালে বিস্তারিত অর্থে American Scene Painting নামে এক বাস্তববাদী শিল্প আন্দোলনের পর্যবসিত হয়।
সূত্রঃvisual-arts-cork.

rurally-oriented Regionalism, and the urban and political Social Realism
আমেরিকান সিন পেন্টিং(American Scene Painting) হ’ল একটি শিল্প আন্দোলন যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মহামন্দার সময়ে জনপ্রিয় ছবি আঁকার বাস্তববাদী এবং আমেরিকার আধুনিক স্টাইল বিরোধী আন্দোলন। ইউরোপীয় আধুনিকতাবাদের বিরুদ্ধে একটি প্রতিক্রিয়া, এটি একটি অনন্য আমেরিকান শিল্প ধারার শৈলীর সংজ্ঞা দেওয়ার প্রচেষ্টা হিসাবে দেখা দিয়েছিল। (উপরের ছবিগুলি দেখুন)
আমেরিকার দৃশ্যচিত্র মূলত দুটি প্রধান ধারায়, গ্রামীণমুখী ও আঞ্চলিকতা এবং নগর ও রাজনৈতিক সামাজিক বাস্তবতা (rurally-oriented Regionalism, and the urban and political Social Realism)।
চার্লস বুর্চফিল্ড এবং এডওয়ার্ড হপার (Charles Burchfield and Edward Hopper.) সহ কয়েকজন শিল্পী আঞ্চলিকবাদী বা সামাজিক বাস্তববাদী শিবিরগুলির সাথে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত থাকতে চাননি।এই আন্দোলন ১৯২০ থেকে ১৯৪০ সময় জুড়ে ছিল।
সূত্রঃartcyclopedia, artspace, britannica. visual-arts-cork
এরপর, ইজম শিল্প রচনার বিবর্তন এ পড়বেন।

 

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!