গুচ্ছ কবিতায় কল্যাণ চট্টোপাধ্যায়

সৃষ্টি

আমার সৃষ্টির পথে মায়ামেঘ জমে আছে

মাটির জলবায়ু খুব প্রতিকূল
সূর্য প্রতিদিন চকমকি পাথরের মতো আগুন দিলেও
বাতাসে বারুদেরা অনুপস্থিত

আমার সৃষ্টিরা প্রতিদিন ফানুসবাতির মতো

অস্থির সময় — অস্থির সময়
হাত নেড়ে থামাতে চাইলেও
অক্সিজেনেরা উল্লাস করে চলে যায়

আমার আগুন কেবলি স্থিতিহীন

স্বপ্ন

পাখিরা উড়ে গেলে সামনের সবটুকু শূন্য

আপাত দৃষ্টিতে আমার কোনো আকাশ নেই
হাওয়ার ওপর অপেক্ষাকৃত হালকা হাওয়া
মেঘ ও বিক্ষিপ্ত ধূলিকণা ঝুলে আছে নীলের কোলে

আয়নার সামনে দাঁড়ালে
আমি ও বিশ্বপ্রকৃতি আনুভূমিক

আসলে আমার স্বপ্ন বলতে
প্রতিদিন সকালের নতুন খবরের কাগজ

সুখ

আয়নার কাচের মতো সুখ
আমি তোমাকে প্রতিদিন সাদা কাপড়ে মুছে মুছে রাখি

যে মাটির ভেতর লেগে আছে জন্মদাগ
আঁতুররক্ত
আমি তো চাই প্রতি শুক্লপক্ষ রাতে তাকে ছুঁয়ে থাকতে

এখন গভীর দিনের ভেতর
বাঁ-বুক চিন চিন করে
ফেরিওয়ালা হাঁক দিয়ে যায়

সুখ কি পেরেছে কখনো স্বচ্ছ থাকতে

ঠিক বুঝতে পারি না
রাস্তায় আমার জন্যে কারা অপেক্ষা করে আছে

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!