• Uncategorized
  • 0

কবিতায় সুব্রত বেরা

কুঁড়িটা জ্বলছে…

বাগানটা আমার ভাঙ্গাচোরা,মালি নেই,অযত্নে মৃতপ্রায়,
ধুলোর সমাধিতলে, স্বপ্নেমোড়া মৃত রাঙা গোলাপটা।
জোনাকিরা শুকনো ঠোঁটে চিতিয়ে বুক,
জ্যোৎস্না রাতে  মলিনদেহ লাবণ্যে চিত্ত অর্বুদ।
আমার পৃথিবীটা,ডুবিয়া ঘুন ধরেছে,
মরেছে, অমাবস্যায় ত্রাসে …….
নাহ!পারিনি’তো বেলাভূমিতে লুকোতে,
ভাঙ্গা শামুখে সে যে জারজ,অতীতে মুক্তোর নির্যাসে।
আমার প্রেমের বাগানে ,মরে গেছে সাধের গাছটা,
প্রতীক্ষায় পরাজিত, ভেজার অপার সম্ভাবনা সাধটা।
মাথায় ছুঁয়ে যাওয়া মেঘটা,বিদ্যুৎ ফুলিঙ্গে ও পরবাস,
আজ কোন দেশেতে, নির্ঝরে ইতিতে করে সহবাস!
শত বিপ্লবী পাঁজর,অপরাধী শুধু আজ.
জানিনা কেন,কোন শিরাটা রক্তের চাপে হতো উন্মাদ!
কোন শিরাটা, গোলাপের চাদরে গান তুলতো অনুক্ষণ!
কোন শিরাটা,জালকে জালকে মিলনের স্বপ্ন আঁকতো  সর্বক্ষণ!
মরা গাঙে আসবে কবে কোলাহল;
পসরা সাজিয়ে বসে আছি,আসবে কবে প্লাবন।
ভুলে গেছি আমি, কতকাল আগে..
সবুজের আল্পনা ছিলো ,কতো–শত পাতার মাঝে।
আজ ধুলো উড়ছে না,এক একটা বিক্ষেবেও
কতো দ্বিপহর ছুঁয়েছে আমায়,সবুজ খিল–খিলিয়েছে,
আজ দিগন্তে নেমে আসা লাল গোধূলির করুণায়,
জ্বলছে চিতা আজ যে আমার সবুজ কুঁড়িটায়।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!