কবিতায় শুভদীপ কুণ্ডু

বেরিয়ে আয়

থাক না দূরে,
অজুহাতের ছল তো এখন শ্যাওলা জমা।
যা খুশি কর,
বারণ করার চলও এখন গুণছে প্রমাদ।
ভাবের ঘোরে থাকিস মানেই
ভুলের সহপাঠী,
জুতো পরে আর কতোদিন
বলবি ‘ছুঁইনি মাটি’?
মৌচাকে রোজ ঢিল পড়েছে
ঝোপের ভরসাতে,
ঢিলের গায়ে মৌ মাখা, তাও
চাক জমে না তাতে।
কেন নিজের সুখের বাসায়
ঢিল মেরে রোজ তোরা
ঢিলের কদর বেশি করে
নিজেই ভিটেছাড়া?
এইভাবে তুই
আর কতোদিন থাকবি ভুলে নিজের কথা?
বেরিয়ে আয়
ভেঙে আগল নেশার ভূতের কথকতার।।

এতোটা এসেছি চলে

এতোটা এসেছি চলে, দেখো,
অভিযোগ অপবাদ সবটুকু মেখে নেওয়া হলে
জানিয়ে দেবো তোমায়, ইচ্ছের মেলে যদি সায়।
না জানালে বুঝে নিও তুমি
কথারা হারিয়ে গেছে আহত হৃদয়ে লজ্জায়।
চেয়ে গেছি, শুধু চেয়ে গেছি,
মুছে যাবে দুর্দিন সীমাহীন প্রান্তর থেকে,
ঝরাপাতা উড়ে গিয়ে নতুনের পথ যাবে এঁকে।
আবেগের কালিমা কাটিয়ে
নিভু নিভু দীপও জ্বলে বাস্তব মেনে নেওয়া দেখে।
সে সবের কথা আজ থাক-
চলে আসা পথ জুড়ে বিরহই পূর্ণতা পাক
অনন্ত পিছুটান আর কিছু দীর্ঘশ্বাসে,
প্রহর হবে না গোণা সুদূরের অনুতাপ
অথবা প্রেমের উচ্ছ্বাসে।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!