• Uncategorized
  • 0

কবিতায় পার্থ সারথি গোস্বামী 

বেহিসেবি বসন্তের দায়

তোমার জানালায় যখন কৃষ্ণচূড়া উঁকি দিলো
আমার শরীর মনে তখন একশো-দুশো জ্বর –
লালমাটির রাস্তার বাঁকে সাঁওতাল রমণী
অনেকটা ভালোবাসায় পাত্র ভর্তি করে বসে থাকে
পলাশ পাতার ঠোঙায় উজাড় করে দেবে বলে ।
ভাগ্যিস সেদিন আমি ছবি আঁকতে শিখিনি –
কালো চশমার আড়ালে গাঢ় হয় পলাশের রং
পাতাঝরা রাস্তায় পথ হারিয়ে তোমার খেয়ালি ঠোঁট
ভেজা ভেজা কবিতায় ভরিয়ে দেয় চৌকাঠ , উঠোন ।
বুক পকেটে রাখা খুচরো অভিমানের ধোঁয়া সেদিন
মেঘ হয়েছিল তোমার খামখেয়ালি আবদারে ।
ভাগ্যিস সেদিনও আমি সাঁতার শিখিনি –
অনেক ফুল, ছবি, সাঁতারের পর আবার পলাশ ফোটে
জ্বর গায়ে কিলবিল করে ওঠে মাইথোলজি আশকারা
আদ্র কবিতায় শ্যাওলা আজ ভীষণ রকম পরজীবী
উঠোন, বুক পেরিয়ে ছুঁয়ে গেছে শেকড় আদিম –
মনে হয় খোলস আর পর্নমোচনে কোন অন্তর নেই ।
এই ,শেখাবে ? আজ একবার –  চুম্বন অন্তমিল ।।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!