কবিতায় তৈমুর খান

মুখগুলি

রঙিন ওড়নাগুলি কাদের প্রেমিকার?
হৃৎপিণ্ড লাফিয়ে উঠছে প্রবল
ওড়নায় ঢাকা কার মুখ?
বসন্ত দিনের মেঘের পর্যটন
সমস্ত আকাশ ঘিরে চরে
রঙে রঙে ওড়নাগুলি
ইংগিতে হাসে
একে একে স্মরণীয় মুখগুলি
স্মৃতি ব্যঞ্জনায় ফুটে ওঠে
চেনা চেনা তবু অচেনা-ই…

মৃত্যুহীন নতুন সকাল

একটা পৃথিবী ভরে যাচ্ছে মৃত্যুর ভাষায়
এভাবে সকাল হচ্ছে কেন?
মৃত্যুর পাশে বসে হাসি দেখব, হাসি দেখব
তারপর একদিন শুধু হাসি
যুদ্ধ আর রক্তপাতগুলি
আর ধর্মের নামে নিষ্ঠুরতা
কেন আসছে এত?
মানুষ শুধু মানুষের উত্তর
মানুষেই ভরে থাক পৃথিবীর রূপ-রস-গন্ধ
মৃত্যু ও মৃত্যুর ভাষাকে কেন ডাকো?
সকাল হোক মৃত্যুহীন, নতুন সকাল ।

গঙ্গাস্নান

বয়স হলে ভালবাসাও গঙ্গাস্নানে যায়
মা গঙ্গাকে মনের কথা বলে
জলে ডুব মেরে নিজের কুমারীবেলা
অনুভব করে
আমি দূর থেকে সেই ভেজা কাপড় পরা
সেই কুমারী ভালবাসাকে দেখতে পাই
আর মনে মনে কামনার নীল রোদ
ছড়িয়ে দিই
পৃথিবী এত তাড়াতাড়ি আমাদের কৌমার্য
হরণ করে নিয়েছে
আর দেখতে দেখতে কখন বিকেল হয়ে এসেছে
খুব বিস্ময় লাগে
বিস্ময়ের ভেতর দাঁড়িয়ে আছে আজও
আমাদের প্রথম পরিচয়
আমরা কেউ মহাকাব্য লিখিনি
কেউ আত্মহত্যার কথা ভাবিনি
সারাজীবন শুধু বাঁশি বাজিয়ে গেছি
এই গঙ্গাস্নানের ঘাট অবধি
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!