কবিতায় অর্ঘ্য ব্যানার্জী

অদৃষ্ট

হটাৎ করে ঝড় উঠল
নেমে এল বৃষ্টি
এটাই কি ছিল অদৃষ্ট?
ভালো থাকার ভাবনা মাথায় নিয়ে
বেঁচে থাকার চেষ্টা
বা ভালো না থাকার ভঙ্গিমা
করেছি রপ্ত
এটাই কি ছিল অদৃষ্ট?
এই নিয়ে এক পথচারী গেল রসাতলে
আর দুঃখের রঙ হল গাঢ়
বা রক্তের লাল ক্রমশ  হালকা হয়ে এল
চেতনার হীনতায়
ধীরে ধীরে তা হয়ে যাবে জল
অহেতুক উন্মাদনায় প্রেয়সী পাগল
আর কিছু উদ্দেশ্যহীন চেতনারা, থাকবে অবশিষ্ট
এটাই কি ছিল অদৃষ্ট?…

থমকে যাও পথেই

থমকে যাও পথে
আমি তোমার সাথে দু পা চলে যায়
বিষাক্ত এই হওয়ার কিছু স্নিগ্ধতা পেতে চায়
আর তারপরেই যত তিক্ততা
ঢেকে দেবে মধুরতা
আর তারপরেই যত জটিলতা
কেড়ে নেবে সম্পর্কটা
এসে যাবে চাওয়া পাওয়ার হিসাব…
তাও থমকে যাও পথেই
আমি তোমার সাথে দু কথা বলে যায়
প্রাচীন এই পৃথিবীর সবুজে মিশে যায়
আর তারপরেই যত শূন্যতা
মুছে দেবে মুহুর্তটা
আর তারপরেই মায়াহীনতা
এনে দেবে শুধু ব্যর্থতা
নেমে যাবে অন্ধকার জীবনে
তাও থমকে যাও পথেই
থমকে যাও
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!