সায়ন্তনী কুলভীর কবিতা

দেশ

আমি সেই মাটি থেকে কথা বলতে চাই
যে মাটিতে ভেঙে পড়ে সহস্র নিরাবতা
জল সেঁচে চাষ করা আমার প্রাচীন শহর
কারা যেন আগলায় মুষল মনস্কতা।
হঠাৎ-ই চোখের কোণে মুছে যায় গ্লানি
হতাশা নরম বড়,ভেসে ওঠে ক্ষত
টিলার উপরে আজও আসে নেমে  রাত
তখন,পালটে যাওয়াটাই অন্ধের মত।
প্রতি গুরুবারে পড়ে লক্ষ্মী পাঁচালি
মাটির বুকে কেন এত বিভেদের দাগ?
মৃত মুখ ভেসে ওঠে শকুনের দেশে
তবু ভালবাসার গলা টিপে হতাশাই থাক।
আমি ভুলে গেছি এ আমার দেশ নয়
যারা আলো দিতে জানে,তারা নেই আর বেঁচে
মুহূর্তে ছড়িয়ে রাখা স্বাধীন যত পালক–
ভুলে যায় মানুষ আজও অমানুষী আছে ।।
Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!